কলকাতা: ডুরান্ডের সেমিফাইনালে হারের ধাক্কা সামলে কলকাতা লিগে ঘুরে দাঁড়াল ইস্টবেঙ্গল৷ নিজেদের মাঠে বিএসএস স্পোর্টিং ক্লাবকে ২-১ গোলে পরাজিত করে লাল-হলুদ বাহিনী৷ বৃষ্টির জন্য দেরিতে শুরু হওয়া ম্যাচের দুই অর্ধে ইস্টবেঙ্গলের হয়ে গোল দু’টি করেন কোলাডো ও বিদ্যাসাগর সিং৷ অন্যদিকে সংযোজিত সময়ে পেনাল্টি থেকে গোল করে বিএসএসের ব্যবধান কমান ওপোকু৷

কলকাতা লিগের প্রথম ম্যাচে জর্জ টেলিগ্রাফের কাছে অপ্রাত্যাশিত হারের পর ডুরান্ডের জন্য বিএসএসের বিরুদ্ধে ইস্টবেঙ্গলের দ্বিতীয় ম্যাচ পিছিয়ে দেওয়া হয়৷ রবিবার সেই ম্যাচও বেশ কিছুটা দেরিতে শুরু হয় ইস্টবেঙ্গল মাঠ বৃষ্টিতে খেলার উপযুক্ত না-থাকায়৷

আরও পড়ুন: দেশের বাইরে রেকর্ড জয় টিম ইন্ডিয়ার

ইস্টবেঙ্গল কোচ আলেজান্দ্রো মেনেন্দেজ গোকুলামের বিরুদ্ধে ডুরান্ড সেমিফাইনালের প্রথম একাদশের পাঁচ জন ফুটবলারকে একসঙ্গে বেঞ্চে বসিয়ে রাখেন৷ মিরশাদ, সামাদ আলি মল্লিক, মনোজ মহম্মদ, কাসিম ও পিন্টু মাহাতার জায়গায় শুরু থেকে মাঠে নামান রালতে, কমলপ্রীত সিং, অভিষেক আম্বেকর, তোন্দোম্বা সিং ও মার্কোসকে৷ স্প্যানিশ মার্কোসের এই ম্যাচেই অভিষেক হয়৷

ম্যাচের ১৮ মিনিটে কলমপ্রীতের বাড়ানো পাস নিজেদের বক্সে ক্লিয়ার করতে ব্যর্থ হন বিএসএস ডিফেন্ডার রাকেশ কর্মকার৷ সুযোগ সন্ধানী কোলাডো ফিরতি বল প্রতিপক্ষের জালে রাখতে ভুল করেননি৷ ২৬ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুন করার সুযোগ ছিল ইস্টবেঙ্গলের সামনে৷ তবে মেহতাবের হেডার গোল লাইন থেকে ক্লিয়ার করেন করণ থাপা এবং সে যাত্রায় বিএসএসকে পতনের হাত থেকে রক্ষা করেন৷

আরও পড়ুন: জন্মদিনে মা’কে বিশ্বচ্যাম্পিয়নশিপের সোনার পদক উপহার সিন্ধুর

ম্যাচের ৫২ মিনিটে ইস্টবেঙ্গলের হয়ে দ্বিতীয় গোল করেন বিদ্যাসাগর সিং৷ স্যান্টোস লং শট করণ থাপা প্রতিহত করলেও ফিরতি বল বিএসএসের জালে ঠেলে দেন বিদ্যাসাগর৷ ইনজুরি টাইমে (৯০+৩) কমলপ্রীত সিং নিজেদের বক্সে হ্যান্ডবল করলে বিএসএস পেনাল্টি পেয়ে যায়৷ স্পট কিক থেকে গোল করে ম্যাচের স্কোরলাইন ২-১ করেন  উইলিয়াম ওপোকু৷