নিউ ইয়র্ক: সারা বিশ্বের জন্য অ্যান্থেম লিখেছিলেন এক ভারতীয়। সেই অ্যান্থেম এবার গাওয়া যাবে ৫০টি ভাষায়। সম্প্রতি জুলু ভাষাতেও অনুবাদ করা হয় সেই অ্যান্থেম। বিশ্বের কয়েকটি বহু ব্যবহৃত ভাষা ছাড়াও মঙ্গোলিয়ান, খাসি, জোংখা সহ একাধিক ভাষায় অনুবাদিত হয়েছে সেই গান।

২০০৮ সালে ভারতীয় কূটনীতিক অভয় কে এই গান লেখেন। তিনি তখন থাকতেন রাশিয়ার সেন্ট পিটার্সবার্গে। এরপর থেকে অনেক পথ পেরিয়েছে সেই অ্যান্থেম। গানটিতে সুর দেওয়া হয় নেপালে। কাঠমান্ডুতে বসে সেই সুর তৈরি করেন সাপান ঘিমিরে। আর গানটি আটটি ভাষায় গেয়েছেন নেপালি গায়িকা শ্রেয়া সোতাং।

বিশ্ব পরিবেশ দিবসে ২০১৩ সালে গানটি আনুষ্ঠানিকভাবে প্রকাশ করে ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অফ কালচারাল রিলেশন। গানটির লাইনগুলি হল- “united we stand as flora and fauna/united we stand as species of one Earth”. এই গানের মাধ্যমে বোঝানো হয়েছে যে বিশ্বে শুধু মানুষ নয়, অন্যান্য প্রাণীদেরও সমান গুরুত্ব রয়েছে।

পরবর্তীকালে বিশ্ববিখ্যাত ভায়োলিন বাদক ড. এল সুব্রহ্মণ্যম গানটিতে সুর দেন ও কবিতা কৃষ্ণমূর্তির গলায় শোনা যায় সেই গান। চলতি বছরের জুন মাসে গানটি ইউরোপে প্রকাশিত হয়। পর্তুগিজ ভাষাতেও গানটি গাওয়া হয়েছে।

এবার ৫০টি ভাষায় অনুবাদ হওয়ার পর আর্থ ডে ও বিশ্ব পরিবেশ দিবসে গানটি বিশ্ব জুড়ে গাওয়া হবে। এই গান যে আগামিদিনে গোটা বিশ্বকে একই চিন্তার পথে অগ্রসর করবে, সেকথা স্বীকার করে নিয়েছে UNESCO. নতুন করে গানটি কম্পোজ করার জন্য সঙ্গীতকারদের আহ্বান জানিয়েছেন অভয় কে।