স্টাফ রিপোর্টার, আলিপুরদুয়ার: পর্যটন কোনও কোনও মানুষের প্রিয় শখ। সময় পেলেই অনেকে বেরিয়ে পড়েন প্রকৃতির টানে। কোনও এক নির্জন পাহাড়ের কোলে কিংবা সমুদ্রের সৈকতে। অথবা মরুভূমির ধু ধু প্রান্তরে। ভ্রমণ মানুষের মন ও শরীরকে করে তোলে চনমনে। ভ্রমণ শুরু হয় রাস্তা থেকে। তাই সাহিত্যিক বুদ্ধদেব গুহ বলেছিলেন– ‘ভ্রমণ গন্তব্যে নেই, ভ্রমণ আছে রাস্তায়’।

রাজ্য সরকার বহুদিন থেকেই পর্যটন প্রসারে উদ্যোগী। স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উদ্যোগে ইতিমধ্যেই পর্যটনে এগিয়ে গিয়েছে বাংলা। এবার পুজোর পর থেকে পর্যটন দফতর নিতে চলেছেন নতুন উদ্যোগ। আগামী দিনে রাজ্যের প্রতিটি জেলায় গঠন করা হবে ট্যুরিজম ডেভলপমেন্ট বোর্ড। সমস্ত জেলায় জেলাশাসকের দফতরে এর জন্য একজন করে নিয়োগ করা হবে বলে জানা গিয়েছে।

পর্যটনমন্ত্রী গৌতম দেবের কোথায়, “ট্যুরিজম ডেভলপমেন্ট বোর্ডের চেয়ারম্যান হবেন নির্দিষ্ট জেলার জেলাশাসক। এছাড়াও আগ্রহী দু’জন বিশিষ্ট ব্যক্তিকে ওই বোর্ডে সম্মানের সঙ্গে রাখা হবে।” পর্যটন দফতরের এই উদ্যোগে স্বাভাবিকভাবেই খুশি পর্যটকরা।

মনে করা হচ্ছে বাংলার পর্যটন উন্নত হলে আগামী দিনে সারা ভারতের পর্যটক ছুটে আসবে পশ্চিমবঙ্গে। আলিপুরদুয়ার জেলায় দু’বছর আগে এমন একটি বোর্ড গঠন করা হয়েছিল। কিন্তু জেলাবাসীর অভিযোগ, সেই বোর্ড বিশেষ কোনও কাজ করেনি। আগামী দিনে প্রতি জেলায় ট্যুরিজম ডেভলপমেন্ট তৈরি হলে আদতে রাজ্য পর্যটনের কতটা প্রসার হবে সেটাই এখন দেখার।