স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: করোনাভাইরাসের ভয়ে ঘরে ঢুকে না গিয়ে কী ভাবে আন্দোলনের কৌশল তৈরি করা যায়, সে দিকে নজর দিতে নেতা-কর্মীদের আহ্বান জানাল সিপিএম। কঠিন পরিস্থিতিতে মানুষের পাশে থেকে স্বাস্থ্যবিধি মেনেই আন্দোলন চালানোর বিকল্প পথ খুঁজতে হবে বলে জানিয়েছেন সিপিএমের রাজ্য সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্র। এমনকী সাইকেলে চেপে মানুষের কাছে পৌঁছে যাওয়ার কথাও বলেছেন তিনি।

সিপিএম রাজ্য সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্র বলেছেন, “কেন্দ্র এবং রাজ্য সরকার চায়, করোনার কারণে আমরা একেবারে ঘরে ঢুকে যাই! সেটাই ওদের কাছে ‘নিউ নর্মাল’। কিন্তু এই পরিস্থিতির মধ্যেও কী ভাবে মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে আন্দোলন করা যায়, তা ভাবতে হবে আমাদের। সঙ্কট, দুর্যোগের সময়ে আমাদের ছেলে-মেয়েরা মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে। আমাদের জন্য এটাই নিউ নর্মাল।”

উদাহরণ হিসেবে সূর্যবাবু বুধবার গ্রামে-গঞ্জে বুথস্তর পর্যন্ত মানুষের পাশে থাকার এই কাজে প্রয়োজনে সাইকেল মিছিল করার কথা বলেন।

সূর্যকান্ত মিশ্র বলেছেন, “স্বাস্থ্য পরিকাঠামোর অব্যবস্থা থেকে ত্রাণের চাল বা ক্ষতিপূরণের টাকা দেদার লুট, সব অন্যায়ের বিরুদ্ধে আমরা চুপ করে থাকতে পারি না। তবে আমরা নৈরাজ্যবাদীও নই। যাবতীয় স্বাস্থ্যবিধি মেনেই আমাদের আন্দোলনের পথে থাকতে হবে।”

লকডাউন পরিস্থিতিতে বাইরের কর্মসূচির পাশাপাশি আভ্যন্তরিন কর্মসূচিতেও বেশকিছু পরিবর্তন করেছে আলিমুদ্দিন স্ট্রিট। দলের কেন্দ্রীয় কমিটি, রাজ্য কমিটির পাশাপাশি অন্যান্য বৈঠকও ভার্চুয়ালি করেছে দল।

আগামী দিনে কর্মসূচিতে যে আরও অভিনবত্ব আনা হবে, সিপিএমের রাজ্য সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্রের ইঙ্গিতে তা স্পষ্ট। নেতা-কর্মীদের আরও উদ্যমী হওয়ার ডাক দিয়েছেন সিপিএমের প্রবীণ পলিটব্যুরো সদস্য বিমান বসুও।

পপ্রশ্ন অনেক: নবম পর্ব

Tree-bute: আমফানের তাণ্ডবের পর কলকাতা শহরে শতাধিক গাছ বাঁচাল যারা