জো’বার্গ: সাদা জার্সিতে আর দেখা যাবে না জেপি ডুমিনিকে৷ টেস্ট ও প্রথমশ্রেণির ক্রিকেট থেকে সরে দাঁড়ালেন ৩৩ বছরের প্রোটিয়া অল-রাউন্ডার৷ শনিবার ক্রিকেট সাউথ আফ্রিকা মিডিয়া বিজ্ঞপ্তিতে ডুমিনির টেস্ট অবসরের কথা জানায়৷

আরও পড়ুন: কোচ বিতর্কে বীরু’র সঙ্গে কথা বলবেন সৌরভ

১১ বছরের কেরিয়ারে মাত্র ৪৬টি টেস্ট খেলেছেন ডুমিনি৷ ২০০৮-এ পারথে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে অভিষেক হয়েছিল প্রোটিয়া ক্রিকেটারের৷ আর শেষ টেস্ট খেলেছেন লর্ডসে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে৷ গত মাসে লর্ডস টেস্টের পরই দল থেকে বাদ পড়েন ডুমিনি৷ তার পর প্রথমশ্রেণির ক্রিকেটকে গুডবাই জানানোর সিদ্ধান্ত নেন দক্ষিণ আফ্রিকার বাঁ-হাতি ব্যাটসম্যান৷ টেস্টের পাশাপাশি প্রথমশ্রেণির ম্যাচও খেলবেন না ডুমিনি৷

আরও পড়ুন: ইন্দো-অজি যুদ্ধের চারকাহন

ক্রিকেট সাউথ আফ্রিকা মিডিয়ার তরফে ডুমিনি জানান, ‘অনেক ভেবেচিন্তে আমি টেস্ট ও প্রথমশ্রেণির ক্রিকেট থেকে অবসরের সিদ্ধান্ত নিলাম৷ কেরিয়ারটা দারুণ উপভোগ করেছি৷ দেশের হয়ে ৪৬টি টেস্টে প্রতিনিধিত্ব করতে পেরে আমি গর্বিত৷ টেস্ট ক্রিকেট আমার কাছে পিনাকেল৷ তবে গত ১৬ বছরে ডব্লুউএসবি কেপ কোবরাসের হয়ে ১০৮টি প্রথমশ্রেণির ম্যাচ খেলার অভিজ্ঞতাও দারুণ৷ এই মুহূর্তগুলো চিরদিন বয়ে বেড়াব৷’

আরও পড়ুন: ধোনিকে ‘GOAT’ বললেন পাক ক্রিকেটার

টেস্ট ও প্রথমশ্রেণির ক্রিকেট থেকে সরে দাড়ালেও সীমিত ওভারের ক্রিকেট খেলে যাবেন প্রোটিয়া অল-রাউন্ডার৷ ডুমিনি জানান, ‘এবার আমার লক্ষ্য সমীতি ওভারের ক্রিকেট৷ দেশের হয়ে এবং কেপ কোবরাসের হয়ে সীমিত ওভারের ক্রিকেট খেলব৷ ফলে এবার থেকে পরিবারকে অনেক বেশি সময় দিতে পারব৷’ অর্থাৎ ২০১৯ বিশ্বকাপকে পাখির চোখ করছেন প্রোটিয়া বাঁ-হাতি ব্যাটসম্যান৷ এছাড়াও কেপ কোবরাস ও কেপ টাউন নাইট রাইডার্স হয়ে খেলবেন ডুমিনি৷ চলতি বছরের শেষ দক্ষিণ আফ্রিকায় শুরু হচ্ছে টি-২০ গ্লোবাল লিগ৷ এই দলেই কেপ টাউন নাইট রাইডার্সের হয়ে খেলবেন তিনি৷

আরও পড়ুন: কোটি টাকার এন্ডোর্সমেন্ট ছেড়ে দিলেন কোহলি