স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: দাঁত তুলতে বাধা দেওয়ায় চিকিৎসকের হাতে প্রহৃত হতে হল ছয় বছরের এক শিশুকে৷ রানিকুঠির লায়ন্স ক্লাবের একটি দন্ত চিকিৎসালয়ের এই ঘটনায় তীব্র চাঞ্চল্য দেখা দিয়েছে৷ ওই শিশুর পরিবারের অভিযোগে ভিত্তিতে গ্রেফতার করা হয়েছে ওই দন্ত চিকিৎসক রবিন সিনহাকে৷

জানা গিয়েছে, এই শিশুটিরও দাঁত তোলায় ভয় ছিল৷ তার উপর ইঞ্জেকশন দেওয়ার নাম শুনতেই সে বেঁকে বসেছিল৷ যদিও শিশুটির এই আচরণেই ক্ষিপ্ত হয়ে উঠেছিলেন দন্ত চিকিৎসক৷ তখন ভয় কমানোর পরিবর্তে শিশুটিকে সপাটে তিন চড় কষান বলে অভিযোগ৷

তবে, চড় মেরে তিনি খান্ত হননি বলেও অভিযোগ৷ হাতে থাকা দাঁত তোলার সরঞ্জাম দিয়েও শিশুটিকে তিনি প্রহার করেন বলেও অভিযোগ৷ এমন কাণ্ডের জেরে ডাক্তারের চেম্বার থেকে ওই শিশুটিকে নিয়ে বেরিয়ে আসেন তার মা৷

শিশুটির পরিবারের অভিযোগ, কর্তৃপক্ষ তাদের কথায় কোনও রকম পাত্তা দেননি৷ নেতাজিনগর থানায় জামিন অযোগ্য ধারায় অভিযোগ দায়ের করা হলে ওই চিকিৎসককে গ্রেফতার করা হয়৷ পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে৷