স্টাফ রিপোর্টার, হাবড়া: করোনা মোকাবিলায় এবার সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে সাধারণ মানুষকে বড় পরিসরে কেনাকাটা করার সুবিধা করে দিল উত্তর ২৪ পরগনা জেলা প্রশাসন। রবিবার হাবড়ার বাজার উঠে এল বাণীপুর মেলার মাঠে। করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রুখতে ঘিঞ্জি ছোট জায়গায় বাজার না বসিয়ে বড় মাঠে বাজার বসানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রশাসন । যাতে বাজার করতে কোনও মানুষের সমস্যা না হয়। সেই কারনেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

বড় মাঠে বাজার করার সুবিধা পেয়ে সাধারন মানুষ এমনকি ক্রেতা থেকে বিক্রেতা সকলেই ভীষণ খুশি। মানুষ বড় পরিসরে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে বাজার করতে পারছে বাণীপুর মেলার মাঠে এসে। কেনাকাটা করতে পারছেন স্বচ্ছন্দে, নিরাপদে। বড় পরিসরে বাজার করার সুবিধা করে দেওয়ায় মানুষকে আর ঘিঞ্জি বাজারে গিয়ে এক অপরের সংস্পর্শে আসতে হচ্ছে না। নিরাপদ সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে নিরাপদে দাঁড়িয়েই বাজার করছেন ক্রেতারা। এদিকে, সারা পৃথিবী জুড়ে চলছে করোনা আতঙ্ক। ভারত জুড়ে চলছে লকডাউন ।

হাতেগোনা কয়েকটি জরুরী পরিষেবা বাদে সব দোকানপাট বন্ধ রাজ্যে। ওষুধের দোকান,মুদি দোকান, এটিএম পরিষেবা এই সমস্ত পরিষেবা কেন্দ্র গুলির সামনেও সোশ্যাল ডিস্ট্যান্স বজায় রাখার জন্য প্রশাসনের তরফ থেকে চক আউট করা হয়েছে। নজরদারিতে বাদ পড়েনি সব্জী বাজারও। এরকমই চিত্র ধরা পড়েছে হাবড়ার বাণীপুর মেলার মাঠ এলাকায়।

হাবড়ার শ্যাম সাহার বাজারের ২০০টি সব্জী ও মাছের দোকান তুলে নিয়ে আসা হয়েছে বানিপুর মেলার মাঠ প্রাঙ্গনে। প্রশাসনের দাবি, শ্যাম সাহার বাজারে সোশ্যাল ডিস্ট্যান্স বজায় রাখার ক্ষেত্রে একটু অসুবিধা তৈরি হয়েছিল। তাই বাণীপুর মেলার মাঠ প্রাঙ্গণে এই বাজারটি নিয়ে আসা হয়। এই বাজারে আমাদের ক্যামেরায় ধরা পড়েছে সেই চিত্র, যেখানে মানুষ সচেতন ভাবেই তারা নির্দিষ্ট দূরত্ব বজায় রেখে তাদের দৈনন্দিন বাজার করে বাড়ি ফিরছেন। পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে প্রতি মুহূর্তে চলছে নজরদারি। খুশি বিক্রেতা থেকে ক্রেতা সকলে।