নয়াদিল্লি: এবার শত্রুর গতিবিধির ওপর নজর রাখবে ইসরোর এমিস্যাট৷ পাকিস্তান সীমান্তে কোনও ধরণের ইলেকট্রনিক ইক্যুইপমেন্ট রাখা থেকে তাদের যে কোনও গতিবিধির ওপর নজর রাখবে এই এমিস্যাট৷ ইসরো এবং ডিআরডিও উভয়েই এটি তৈরি করেছে বলে জানা গিয়েছে৷ আগামী ১ এপ্রিল মহাকাশে উৎক্ষেপণ করা হবে একে৷ এর সফল উৎক্ষেপণে ভারতের শক্তি কয়েকগুণ বেড়ে যাবে বলে আশা করা হচ্ছে৷

ডিআরডিও-র প্রাক্তন বিজ্ঞানী রবি গুপ্তা এবং ইসরোর বিজ্ঞানীদের মতে এমিস্যাট একটি মিলিটারি উপগ্রহ৷ এর মাধ্যমে সীমান্তে শত্রু ব়াডার এবং সেনসরের ওপর নজর রাখা সম্ভবপর হবে৷ শত্রুর এলাকার সঠিক নকশা তৈরি এবং শত্রুদের মোবাইল থেকে অন্য যন্ত্রের বিষয়েও তথ্য দেবে এই এমিস্যাট৷

বালাকোটে হওয়া এয়ারস্ট্রাইকের পরে এনটিআরও জানায়, এয়ারস্ট্রাইকের সময় বালাকোটে ৩০০ মোবাইল সক্রিয় ছিল৷ কিন্তু এই বক্তব্য নিয়ে বহু তর্ক-বিতর্ক হয়৷ ওঠে প্রশ্নও৷ এবার থেকে সে সব প্রশ্নের সঠক জবাব দিয়ে দেবে এই এমিস্যাট৷

এক নজরে এমিস্যাটের বিশেষত্ব:-
সীমান্তে শত্রুর ব়াডার এবং সেনসরের ওপর নজর রাখবে
শত্রু এলাকার সঠিক নকশা তৈরি করে দেবে
সীমান্তে মজুত সক্রিয় মোবাইল পোনের তথ্যো তুলে ধরবে
মোবাইল এবং অন্যান্য মাদ্যমে হওয়া কথাবার্তা ডিকোড করতে সক্ষম

আগামী ১ এপ্রিল সকাল ৯.৩০ মিনিটে পিএসএলভি-সি ৪৫ রকেট থেকে এমিস্যাটের সঙ্গে ২৮ টি অন্য বিদেশি উপগ্রহ লঞ্চ করা হবে বলে জানা গিয়েছে৷