বেজিং: চিন দেশের বাসিন্দাদের কাছে ড্রাগনের একটি আলাদা তাৎপর্য রয়েছে। ড্রাগনের নানান প্রতীক সে দেশে ব্যবহৃত হয়। জামা, পোশাক থেকে শুরু করে কোনও কারুকার্য করা নকশা সব কিছুতেই ড্রাগন -এর প্রতীকী চিহ্ন ব্যবহার করতে দেখায় যায় চায়নাদের।

কিন্তু শনিবার যা হল তা প্রথমবারের জন্য চিনের বাসিন্দাদের কাছে ছিল একেবারেই অদ্ভুদ। ডিসেম্বরে ৭ তারিখ অর্থাৎ শনিবার চিনের আকাশে দেখা জয় একটি ড্রাগনাকৃতি মেঘ। কোনও এক ব্যক্তি সেই ছবি তুলে ইন্তারনেটে ছেড়ে দেন, আর মুহূর্তেই ভাইরাল হয়ে যায়। সূর্যাস্তের সময় পশ্চিম আকাশে এই দৃশ্য দেখা যাচ্ছিল।

চিন দেশের বাসিন্দারা অনেকেই মনে করতে শুরু করে দিয়েছিলেন এটা একটা শুভ লক্ষণ। এমন কোনও একটা শুভ চিহ্ন, যা তাঁদেরকে কোনও একটা শুভ বার্তা দিতে চাইছে। যদিও পরে প্রকাশ্যে আসে অন্য কথা। জানা যায়, রকেট উৎক্ষেপণ করা হয়েছিল। আর তার জেরেই আকাশে দেখা গিয়েছিল ওই মেঘের মতো ধোঁয়া।

আরও পড়ুন –খেজুরের ব্যবসার আড়ালেই মাদক ব্যবসা,কলকাতা থেকে গ্রেফতার ৩

আকাশে যখন ওই ড্রাগন আকৃতির ধয়া-মেঘ দেখা গিয়েছিল তখন তার বেশ কিছু ভিডিও ছাড়া হয় ইন্টারনেটে। সেখানে দেখা গিয়েছিল, যে মেঘটি রয়েছে তাকে সহজেই একটি ড্রাগনাকৃতি বলে ধরে নেওয়া যেতে পারে।

তবে পরে সামনে এসে যায় সব তথ্য। আসলেই এটি একটি স্বাভাবিক ব্যাপার। যখন কোনও প্লেন বা রকেট অনেকটা উঁচু দিয়ে যায় তখন এমন ধোঁয়ার সৃষ্টি হয়। আর হাওয়ার কারণে এবং অস্তমিত সূর্যের আলোর জন্য তা একটি ড্রাগনের আকার নিয়েছিল। যা দেখে অবাক হয়েছিলেন স্থানীয়রা।