মুম্বই:  বিশ্বজুড়ে করোনা ভাইরাস মহামারীর আকার ধারণ করেছে ৷ এই অবস্থায় করোনা ভাইরাস যাতে গোটা দেশে ছড়িয়ে না পড়ে তারজন্য গত সপ্তাহ থেকে ২১ দিনের লক ডাইন শুরু হয়েছে ৷ তবে তার জেরে রীতিমতো বিপাকে পড়েছে জনগণ৷ সেই কথা ভেবে একে একে বেশ কিছু পদক্ষেপ করা হচ্ছে৷ যেমন আর্থিক সংকটে পড়া ঋণ গ্রহীতাদের অসুবিধার কথা মাথায় রেখে রিজার্ভ ব্যাংক মেয়াদি ঋণের উপর ইএমআই দেওয়ার ক্ষেত্রে তিন মাসের মোরাটোরিয়াম ঘোষণা করেছে।

রিজার্ভ ব্যাংকের ওই ঘোষণার পর অনেক ঋণগ্রহীতা স্বস্তি পেলেও বাস্তবে কিন্তু দেখা গিয়েছে তার পরেও সংশ্লিষ্ট ব্যাংক অথবা আর্থিক সংস্থা ইএমআই কেটেছে। যার ফলে কিছুটা ধন্দ বেড়েছে ইএমআই দাতাদের মধ্যে। তবে এক্ষেত্রে মনে রাখা দরকার রিজার্ভ ব্যাংক শুধুমাত্র ব্যাংকগুলিকে প্রস্তাব দিয়েছে।এরপর প্রত্যেক ব্যাংক আলাদা ভাবে সিদ্ধান্ত নেবে। এজন্য সংশ্লিষ্ট ব্যাংকের বোর্ডে বিষয়টিকে অনুমোদন করিয়ে নিতে হবে ৷

তার অর্থ, কারও ইএমআই-এর কাটার তারিখ এসে গেলে এবং তখনও পর্যন্ত এই ব্যাপারে ওই ব্যাংক সিদ্ধান্ত না নিতে পারলে স্বয়ংক্রিয় পদ্ধতিতেই ইএমআই কেটে নেবে। তবে আস্তে আস্তে বেশ কিছু ব্যাংক ইতিমধ্যেই জানাতে শুরু করেছে তারা গ্রাহকদের এই সুবিধা দেবে এবং আগামী তিনটি ইএমআই আপাতত কাটবে না। ইতিমধ্যে যেসব ব্যাংকগুলি রিজার্ভ ব্যাংকের ডাকে সাড়া দিয়ে তিন মাসের জন্য ইএমআই নেওয়া‌ স্থগিত রেখেছে ‌‌‌ সেই বিষয়ে বিভিন্ন ব্যাংকের তথ্য একনজরে দেখে নেওয়া যাক।

স্টেট ব্যাংক- স্টেট ব্যাংক জানিয়েছে, এই ব্যাপারে‌ গ্রাহকদেের জানানো‌ হবে ইমেইল অথবা ফোন কল করে‌ কেমন ভাবে প্রভাব পড়বে গ্রাহকদের পেমেন্ট্ট সিডিউল এবং ‌ সুুদ নেওয়ার বিষয়ে। এক্ষেত্রে ব্যাংক তার গ্রাহকদের এই সুবিধা নেবে কিনা সে বিষয়ে অপশন দেবে এবং জানতেে‌ চাইবে। যারা এর সুবিধা নেবে তাদের একটি আবেদনপত্র জমা করতে হবে। সেটা ইমেইল করে জমা করা যাবে।

ওই ফর্ম ব্যাংকের ওয়েবসাইট থেকে পাওয়া যাবে। যারা এই সুবিধা নিতে চাইবে না তাদের কিছুু করতে হবে না। আইসিআইসিআই ব্যাংক- আইসিআইসিআই ব্যাংক তার গ্রাহকদের মোরাটরিয়াম নেওয়ার ব্যাপারে অপশন দেওয়ার জন্য‌ তাদের ওয়েবসাইটে যেতে বলছে। সেখানে গিয়ে তারা কি চান জানিয়ে দিক।

এছাড়া ব্যাংক থেকে পাঠানো মোরাটোরিয়ামের বিষয় এসএমএস অথবা ইমেইল ক্লিক করে তাদের পছন্দের কথা জানাতে পারবে। এই ব্যাংকের পক্ষ থেকে পরিষ্কার জানানো হয়েছে এই জন্য তিন মাস বাদে যে সুদ হবে তা দিতে হবে ঋণ গ্রহীতাকে। এছাড়া ঋণ পরিশোধের ক্ষেত্রেও মেয়াদ বাড়বে।

এইচডিএফসি ব্যাংক- এইচডিএফসি ব্যাংক জানিয়েছে তার সকল গ্রাহক মোরাটরিয়াম পেতে পারেন। তবে এই স্বেচ্ছা সুবিধা ব্যবস্থা গ্রাহকরা নিতে পারেন অথবা নাও নিতে পারেন। যদি তারা না নিতে চান তাহলে কিছু করার নেই আগের মতই ইএমআই কাটা হয়ে যাবে। তবে যদি কোনো গ্রাহকের একাধিক ঋণ নেওয়া হয়ে থাকে তাহলে প্রতিটি ঋণের জন্য আলাদা আলাদা করে মোরাটোরিয়ামের জন্য আবেদন করতে হবে।

যেহেতু কর্পোরেট এবং এসএমই ঋণগ্রহীতারা এর আওতায় পড়ছে তাই এক্ষেত্রে ব্যাংক তাদের জন্য আলাদা আলাদা করে সিদ্ধান্ত নেবে। এই সুবিধা নিতে গেলে গ্রাহকদের ফোন কল করে অথবা ফর্ম ফিলাপ করে জানাতে হবে। এজন্য গ্রাহকরা কাস্টমার কেয়ার নম্বর থেকে নির্দেশ অনুসারে তা করবেন অথবা ওয়েবসাইটে গিয়ে রিকোয়েস্ট সাবমিট করবেন।

কানাডা ব্যাংক- কানাডা ব্যাংক জানিয়েছে গ্রাহকদের এই সুবিধা দেওয়া হবে ১ মার্চ ২০২০ থেকে ৩১ মেয়ে ২০২০ এই তিন মাস। পরিশোধের সময় এজন্যই সেইমতো বাড়ানো হবে। কানাডা ব্যাংক জানিয়েছে কেউ নিতে না চাইলে তারা যেন সংশ্লিষ্ট নম্বরে ‘নো’ বলে জানায়। তাছাড়া গ্রাহকরা ব্যাংকে মেইল করে জানাতে পারে তারা কি চাইছে।

অ্যাক্সিস ব্যাংক- অ্যাক্সিস ব্যাংকের গ্রাহকেরা যদি এ মোরাটোরিয়ামের‌ সুবিধা না নিতে চায় তাহলে তারা ইমেইল করে অথবা সংশ্লিষ্ট শাখায় গিয়ে তা জানাতে পারবেন। যদি ঋণগ্রহীতারা সে কথা লিখিতভাবে না জানান তাহলে ধরে নেওয়া হবে তারা এই মোরাটোরিয়ামের আওতায় পড়ছেন।