লখনউ: বিমানবন্দরেই আটকানো হল সমাজবাদী পার্টি প্রধান অখিলেশ যাদবকে। প্রয়াগরাজে যাওয়ার সময় সমাজবাদী নেতা অখিলেশকে বিমানবন্দরে আটক করে পুলিশ। ঘটনাকে কেন্দ্র করে তৈরি হয় উত্তেজনা। তাঁকে প্রয়াগরাজে যাওয়া থেকে বিরত করা হয়।

মঙ্গলবার এই ঘটনা ঘটে লখনউ বিমানবন্দরে। অখিলেশের দাবি, তাঁকে ভয় পেয়েছে যোগী প্রশাসন। আর সেজন্যই এলাহাবাদ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র সংসদের শপথ গ্রহণের দিন সেখানে যেতে বাধা দেওয়া হয়েছে তাঁকে।

এদিন অখিলেশ একটি ছবি ট্যুইট করে জানান, তাঁকে কীভাবে লখনউ বিমানবন্দরে পুলিশি হেনস্থার মুখোমুখি হতে হয়। এখানেই শেষ নয়, অখিলেশের মিডিয়া টিম আরও একটি ভিডিও টুইটারে পোস্ট করে। যেখানে দেখা যায় কীভাবে তাঁকে কয়েকজন সাদা পোশাকের লোক পথ আটকে হেনস্থা করা হয়েছে। ভিডিওতে শোনা যাচ্ছে, অখিলেশ স্পষ্ট বলছেন ‘গায়ে হাত দেবেন না।’

এদিকে, অখিলেশের আচরণ নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ জানিয়েছেন, যখন এলাহবাদ বিশ্ববিদ্যালয় তাঁকে সেখানে যেতে বারণ করেছে, তা সত্ত্বেও কেন সেখানে গিয়েছিলেন অখিলেশ।

প্রয়াগরাজে এলাহাবাদ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র ইউনিয়নের শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে যোগ দিতে যাচ্ছিলেন অখিলেশ যাদব। আর তার আগেই লখনউতে সপা নেতাকে আটকে দেওয়া হয়। অখিলেশ যাদবের সঙ্গে পুলিশ প্রশাসনের এই ঘটনা নিয়ে রীতিমত ক্ষোভে ফুঁসছেন বিএসপি নেত্রী মায়াবতী। তিনিও এক টুইট বার্তায় নিজের ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। ঘটনার নিন্দা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও।