লখনউ: কোন ব্যাংক কর্মীর পরিবারে অথবা ব্যাংক কর্মচারীর সঙ্গে মেয়ের বিয়ে দেবেন না৷ নতুন ফতোয়া দিলেন দারুল উলুম দেওবন্দ৷ কারণ হিসাবে তিনি বলেছেন, ব্যাংক কর্মচারীরা যে টাকা রোজগার করেন তা ‘হারামের’ (অবৈধ) টাকা৷ তাই হারামের টাকায় সংসার চলে এমন পরিবারের চেয়ে অন্য কোন ‘পবিত্র’ পরিবারে পাত্রের খোঁজ করা উচিত৷

আরও পড়ুন: দারুল উলুমকে নিষিদ্ধ করা হোক, দাবি মুসলিম মহিলা সংগঠনের

ইসলাম বা শরিয়াতে যেকোন ধরনের সুদ লেনদেন নিষিদ্ধ৷ দারুল উলুম সেই কথা মনে করিয়ে বলেছেন, ‘‘এই সব পরিবারগুলিকে এড়িয়ে যাওয়াই উচিত৷ ব্যাংকে কাজ করে এমন পরিবারের সন্তানের সঙ্গে মেয়ের বিয়ে দেবেন না৷ যারা হারামের টাকায় বড় হয়েছে তাদের কোন নৈতিক মূল্যবোধ নেই৷ এমন পরিবারে কি বিয়ে দেওয়া যায়? তাদের এড়িয়ে যাওয়া উচিত৷

পাশাপাশি তিনি ডিজাইনার বোরখা পরার উপরও ফতোয়া দেন৷ বলেন, ডিজাইনার ও স্লিম ফিট বোরখা পড়া মহিলারা অন্য লোকের দৃষ্টি আকর্ষণ করে৷ তাই এই সব বোরখা পড়া উচিত নয়৷ এবং এই ধরনের বোরখা পড়া ইসলাম অনুমোদন করে না৷

আরও পড়ুন: সোশ্যাল মিডিয়ায় ছবি পোস্ট করা ‘ইসলাম-বিরোধী’, ফের দেশে জারি ফতোয়া

তিনি বলেন, ‘‘হিজাবের নামে বাহারি রংয়ের, ডিজাইনার, স্লিম ফিট বোরখা পড়া হচ্ছে৷ এগুলি ইসলাম বিরোধী৷ ইসলাম এই ধরনের পোশাক পরার অনুমোদন দেয় না৷ এই ধরনের পোশাক পুরুষের দৃষ্টি আকর্ষণ করে৷’’
এর আগেও বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন রকমের ফতোয়া জারি করেছেন তিনি৷ সম্প্রতি নিউ ইয়ার পালনের বিরুদ্ধে ফতোয়া জারি করেছিলেন তিনি৷ নববর্ষ পালনকে ইসলামবিরোধী বলে আখ্যা দিয়ে বলেছিলেন মুসলিম ক্যালেন্ডার মহরম থেকে শুরু হয়৷