তিরুঅনন্তপুরমঃ   কেরলের কলেজে একেবারে বেনজির ঘটনা! একেবারে মহিলাদের প্রাথমিক স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ।  কলেজ কতৃপক্ষের চাঞ্চল্যকর নির্দেশ, ছাত্রীরা হস্টেলে পোশাক পরিবর্তনের সময় দরজা লক করতে পারবে না।  এমনকি কোনও সময়ই হস্টেলের ঘরের দরজা ভিতর থেকে খিল দিতে পারবে না ছাত্রীরা।  ঘটনাটি কোল্লামের উপাসনা কলেজ অফ নার্সিং-এর।  কলেজ কতৃপক্ষের এহেন ফতোয়া ঘিরে শুরু হয়েছে তুমুল বিতর্ক।  এমনকি, সোশ্যাল মিডিয়াতেও হৈচৈ শুরু হয়েছে।  এহেন নির্দেশের পরই তীব্র প্রতিবাদ শুরু করেছেন ছাত্রীরা।

ছাত্রীদের দাবি, কলেজ কর্তৃপক্ষ মনে করে, হস্টেলে ছাত্রীরা দরজা বন্ধ করে সমপ্রেম কার্যকলাপ করে।  তাই সব সময় দরজা খুলে রাখলে সমপ্রেম বন্ধ হবে। ছাত্রীদের আরও দাবি, কলেজের প্রিন্সিপাল নাকি বলেছেন, ‘হস্টেলের ছাত্রীরা দরজা বন্ধ করে শুধু মোবাইল ফোনে কথা বলার জন্য কিংবা সমপ্রেম করার জন্য।’

কলেজ কতৃপক্ষের এহেন ফতোয়া ঘিরে ইতিমধ্যে প্রিন্সিপালের পদত্যাগ দাবি করেছে।  এমনকি, যদি অবিলম্বে এই বিষয়ে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাওয়ার দাবি করা হয়েছে।