তিমিরকান্তি পতি, বাঁকুড়া: এই মুহূর্তে সারা দেশ জুড়ে সংবাদ শিরোনামে ‘করোনাভাইরাস’। আর তা নিয়ে সাধারণ মানুষকে অযথা আতঙ্কিত না হওয়ার আবেদন জানালেন বাঁকুড়া জেলা মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক ডাঃ শ্যামল সোরেন।

সোমবার তিনি বলেন, দায়িত্বের সঙ্গে বলছি, এই মুহূর্তে বাঁকুড়া জেলায় করোনা আক্রান্তের কোনও খবর নেই। তবে সন্দেহের তালিকায় বেশ কয়েকজন রয়েছেন। যাদের পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে। প্রসঙ্গক্রমে তিনি আরও বলেন, ইংল্যাণ্ড থেকে আসা ছাতনার একজনকে আমরা ইতিমধ্যে হাসপাতালে ভর্তি করেছি। নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষাগারে পাঠানো হয়েছে। এবিষয়ে রিপোর্ট না আসা পর্যন্ত কোনও কিছু বলা সম্ভব নয়। একই সঙ্গে আরও কয়েকজন সন্দেহের তালিকায় রয়েছে। তাঁদের বর্তমানে হাসপাতালে পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে। প্রত্যেকেরই নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষাগারে পাঠানো হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, করোনা সতর্কতা হিসেবে জেলার হাসপাতালগুলিতে ৫৬ টি বেড নির্দিষ্ট করা হয়েছে। এর মধ্যে বাঁকুড়া সম্মিলনী মেডিক্যাল কলেজ, ওন্দা, ছাতনা, বড়জোড়া সুপার স্পেশ্যালিটি হাসপাতাল ও বিষ্ণুপুর জেলা হাসপাতালের প্রত্যেকটিতে ১০ টি করে ও খাতড়া মহকুমা হাসপাতালে ৬ টি বেড করোনা আক্রান্তের সন্দেহকারীদের জন্য নির্দিষ্ট করে রাখা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, সাবধানের মার নেই। কোনও বিদেশ ফেরৎ পর্যটকের সর্দি, কাশী, জ্বরের উপসর্গ দেখা দিলেই তাকে আমরা তৎক্ষণাৎ আগাম সতর্কতা হিসেবে হাসপাতালে ভর্তি করে নিচ্ছি। নমুনা সংগ্রহের পাশাপাশি সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের ঘনিষ্টজনদেরও চিহ্নিতকরণ করা হচ্ছে। এই মুহূর্তে বহু চর্চিত ‘মাস্ক’ নিয়ে তিনি বলেন, সবার মাস্ক পরে ঘোরার কোনও দরকার নেই। যাদের আমরা সন্দেহের তালিকায় রাখছি তারাই শুধুমাত্র মাস্ক পরুন। মাস্ক পরা মানেই সব সময় নিরাপদ নয়। সাবধানতা অবলম্বনটাই বড় কথা বলে তিনি জানান।

Proshno Onek II First Episode II Kolorob TV