হাউসটন: হাউসটনের মঞ্চে ইতিহাস গড়তে চলেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। অন্তত ৫০,০০০ লোক উপস্থিত থাকবেন মোদীর সেই মেগা শো’তে। আর সেখানেই উপস্থিত থাকবেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তবে সূত্রের খবর, শুধু হাজির থাকবেন না, বক্তব্যও রাখবেন মোদীর মেগা র‍্যালিতে।

হাউডি মোদি অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী মোদীর পাশেই দেখা যাবে ডোনাল্ড ট্রাম্পকে। প্রায় ৩০ মিনিটের একটি বক্তব্য তিনি রাখবেন বলে শোনা যাচ্ছে। রবিবারের এই মেগা ইভেন্টে দুই দেশের গণতন্ত্রের মধ্যে দীর্ঘস্থায়ী সম্পর্কের ক্ষেত্রে নতুন শক্তি যোগাবে বলে মনে করছেন মার্কিন আধিকারিকরা। যদিও এর আগে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে পক্ষ থেকে জানানো হয়, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ৪৫ তম প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এই প্রবাসীদের আয়োজিত অনুষ্ঠানে উপস্থিতি থাকছেন না বা কোনও ভাষণও দিচ্ছেন না।

২০১৬ সালে আমেরিকার নির্বাচনের পর ভারতের সেরা বন্ধু হওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন ট্রাম্প। আগে মোদীর সঙ্গে তাঁর সাক্ষাৎ হয়েছে একাধিকবার। এবার কেবল হাউডি মোদী অনুষ্ঠানে অংশ নিতেই হাউসটনে উড়ে যাবেন তিনি।

শনিবার গভীর রাতে হোয়াইট হাউস থেকে প্রকাশিত কর্মসূচি অনুযায়ী, ট্রাম্প এনআরজি স্টেডিয়ামে ১০০ মিনিট সময় কাটাবেন। যদিও তাঁর বক্তব্যের বিষয়ে স্পষ্টভাবে কিছু জানানো হয়ণি, তবে মনে করা হচ্ছে যে ৩০ মিনিটের মতো বক্তব্য রাখবেন তিনি। পাশাপাশি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ভাষণের সময় তিনি শ্রোতাদের মধ্যেও উপস্থিত থাকবেন বলে আশা করা হচ্ছে।

এছাড়াও নিউ ইয়র্কে ইউএনজিএ চলাকালীন ফের দেখা হবে দু’জনের। অর্থাৎ মোদী দ্বিতীয়বার ক্ষমতায় আসার পর থেকে মোট চারবার মুখোমুখি হতে চলেছেন ট্রাম্পের সঙ্গে।

আমেরিকায় ‘হাউডি’ কথাটা খুবই প্রচলিত। হাউ ডু ইউ ডু কথাটিকে ছোট করে নিয়েই বলা হয় হাউডি, অর্থাৎ কেমন আছেন? টেক্সাস ইন্ডিয়া ফোরাম নামে এক সংস্থা এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছ। আগামী মাসেই রাষ্ট্রসংঘের জেনারেল অ্যাসেম্বলি সেশনে যোগ দিতে হাউসটনে যাবেন মোদী। সেই সময়ই এনআরজি ফুটবল স্টেডিয়ামে প্রবাসী ভারতীয়দের মুখোমুখি হবেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী।