ওয়াশিংটন: ছেড়ে আসার আগে হোয়াইট হাউসে শেষবারের মতো দীপাবলি পালন করলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। ভারতীয়দের দীপাবলির শুভেচ্ছা জানালেন বিদায়ী মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। শনিবার হোয়াইট হাউসে ভারতীয়দের নিয়ে দীপাবলি উৎসবে মাতলেন ট্রাম্প। পরে নিজেই টুইটার অ্যাকাউন্টে উৎসব পালনের ছবি শেয়ার করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

আমেরিকায় বসবাসকারী ভারতীয়দের উদ্যোগে আয়োজিত একাধিক অনুষ্ঠানে গত কয়েক বছর হাজির থাকতে দেখা গিয়েছে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে। ভারতীয়দের প্রশংসা বরাবরই করেন ট্রাম্প। এমনকী প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গেও তাঁর বন্ধুত্বের সম্পর্ক সর্বজনবিদিত। মোদীর ডাকে মার্কিন মুলুক থেকে ভারতে এসে নানা অুষ্ঠানে হাজির থেকেছেন ট্রাম্প।

শনিবার হোয়াইট হাউসে দীপাবলি পালনের আয়োজন করেছিলেন ট্রাম্প। হোয়াইট হাউসের তরফে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল সেখানে বসবাসকারী ভারতীয়দের। তাঁদের সঙ্গে আলোর উৎসবে সামিল বিদায়ী মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

আর কয়েকদিন পরেই হোয়াইট হাউস ছেড়ে পাকাপাকিভাবে বিদায় নেবেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। তাঁর জায়গায় আগামী চার বছরের জন্য মার্কিন মুলুক সামলাবেন জো বাইডেন। হোয়াইট হাউস ছাড়ার আগে তাই শেষবারে মতো দীপাবলি পালনের আয়োজন করেছিলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প।

এদিন ভারতীয়দের সঙ্গে মিলে প্রদীপ জ্বালিয়েছেন ট্রাম্প। মার্কিন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের তরফে টুইটে দীপাবলির শুভেচ্ছা জানিয়ে লেখা হয়েছে, শুভ দীপাবলি।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

জীবে প্রেম কি আদৌ থাকছে? কথা বলবেন বন্যপ্রাণ বিশেষজ্ঞ অর্ক সরকার I।