নয়াদিল্লিঃ  ডোকালাম ইস্যুতে ক্রমশ উত্তেজনা বাড়ছে ভারত এবং চিনের মধ্যে। কার্যত সীমান্তের দুপারে যুদ্ধের পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে ভারত-চিনের সেনাবাহিনী। চলছে হুমকি-পাল্টা হুঁশিয়ারি। অবস্থা এমন জায়গায় পৌঁছে গিয়েছে যে সম্ভবত বন্ধ হতে চলেছে ভারত এবং চিনা সেনাবাহিনীর মধ্যে যৌথমহড়া। ২০০৭ সাল থেকে প্রত্যেক বছর ইন্দো-চায়না Hand-in-Hand joint military drill হয়। কিন্তু এই বছর ডোকালাম ইস্যুতে অবস্থা এমন জায়গায় পৌঁছে গিয়েছে যে কোনও রকম মহড়া নিয়ে উচ্চবাচ্য করছে না চিন। এই বছর এই মহড়ার দায়িত্ব ছিল বেজিংয়ের উপর। কিন্তু ভারতের তরফে একাধিকবার এই মহড়ার প্রস্তুতি নিয়ে ভারত আলোচনা করতে চাইলেও চিনের তরফে কিছু জানানো হচ্ছে না বলে অভিযোগ ভারতীয় সেনার।

প্রত্যেকবছর অক্টোম্বর-নভেম্বর মাসে এই মহড়া হয় ভারত এবং চিনের মধ্যে। গত বছর সন্ত্রাস বিরোধী অভিযানে অংশ নেয় ভারত এবং চিনের সেনাবাহিনী। এবার একাধিক বিষয়ে ভারত এবং চিন সেনাবাহিনীর মধ্যে মহড়া হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু সেনার তরফে বারবার চিনা সেনাবাহিনীর কাছে এই মহড়ার বিষয়ে আলোচনা করার জন্যে আবেদন জানানো হলেও, চিন কিছুই জানাচ্ছে না বলে অভিযোগ ভারতীয় সেনাবাহিনীর।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ