স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: আলোচনার পথ খুললেও বৈঠকে আন্দোলনকারি জুনিয়র ডাক্তারদের প্রতিনিধিত্ব নিয়ে বাড়ছে জটিলতা৷ জুনিয়র ডাক্তারদের দবি মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে রাজ্যের প্রতিটি মেডিক্যাল কলেজের পাঁচজন করে প্রতিনিধি উপস্থিত থাকুক৷ রাজি নয় নবান্ন৷ যা নিয়ে অব্যাহত আন্দোলনকারী ও রাজ্য প্রশাসনের চাপানউতোর৷

সরকারি স্বাস্থ্য পরিষেবায় অচলাবস্থা কাটাতে আলোচনায় রাজি আন্দোলনকারীরা৷ তবে এরজন্য বেশ কিছু শর্তও আরোপ করেন তারা৷ আলোচনার জায়গা নির্ধারণের বিষয়টি মুখ্যমন্ত্রীর উপরই ছেড়ে দেন জুনিয়র চিকিৎসকরা৷ রবিবার জিবি বৈঠকের পর নিজেদের সিদ্ধান্তের কথা জানিয়ে দেওয়া হয়৷

আরও পড়ুন: BreakingNews- হিন্দ সিনেমার কাছে বহুতলে ভয়াবহ আগুন

এরপরই পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে উদ্যোগী হয় রাজ্য৷ আন্দোলনকারীদের সঙ্গে বৈঠকে বসেন রাজ্যের শিক্ষা স্বাস্থ্য অধিকর্তা প্রদীপ মিত্র৷ সেখানেই জুনিয়র ডাক্তাররা দাবি করেন, রাজ্যের ১৪টি মেডিক্যাল কলেজ থেকে ৫ জন করে প্রতিনিধি বৈঠকে থাকবেন৷ প্রদীপবাবু জানিয়ে দেন, ৫ জনের বদলে ১ জন করে প্রতিনিধি থাকতে পারবেন৷ পরে দু’পক্ষই সিদ্ধান্তে আসেন প্রতিটা মেডিক্যাল কলেজ থেকে থাকবেন ২ জন করে প্রতিনিধি৷

আরও পড়ুন: কর্মবিরতির মাঝেই ‘পরিষেবা কেন্দ্র’ চালু করল জুনিয়র ডাক্তাররা

আলোচনার জন্য জায়গা নির্ধানণের বিষয়টি মুখ্যমন্ত্রীর উপরই ছেড়ে দেন জুনিয়র ডাক্তাররা৷ সূত্রের খবর, প্রাথমিকভাবে আন্দোলনকারীদের কাছে নবান্নের সভাঘরেই আলোচনার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে সরকারের তরফে৷ তবে প্রতিনিধিত্ব এবং আলোচনার স্থান কোথায় হবে? তার চূড়ান্ত সিলমোহর দেবেন মুখ্যমন্ত্রীই৷

আরও পড়ুন: আলোচনা চাই, স্থান নির্বাচনে মুখ্যমন্ত্রীর কোর্টেই বল ঠেললেন জুনিয়র ডাক্তাররা

জুনিয়র ডাক্তারদের প্রস্তাব ছিল প্রকাশ্য আলোচনায় থাকবে সংবাদ মাধ্যমের প্রতিনিধিরাও৷ কিন্তু, প্রটোকল মেনে তাতে রাজি নয় রাজ্য সরকার৷ তা স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিকর্তা জনিয়ে দিয়েছেন আন্দোলনকারীদের৷ এই দাবি নাকচ হওয়ায় জিবি বৈঠকে বসেছে জুনিয়র চিকিৎসকরা৷

আন্দোলকারী জুনিয়র ডাক্তারদের সঙ্গে তাঁর আলোচনার নির্যাস রাজ্যের স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিতকর্তা জানিয়েছেন স্বাস্থ্য সচিবকে৷ তিনি বিষয়টি জানাবেন মুখ্যমন্ত্রীকে৷ রাজ্যের প্রশাসনির প্রধান নির্দেশ দিলে আগামীকাল বৈঠকের সম্ভাবনা রয়েছে বলে খবর৷