ক্যালিফোর্নিয়া: বাইপোলার ডিসঅর্ডার এবং এটেনশন ডেফিসিট ডিসঅর্ডারে ভুগছে রোগি৷ এমনই দাবি করে রোগ সারতে পথ্য হিসেবে গাঁজার কুকিজ খাওয়াতে বললেন চিকিৎসক৷ এমনই খবরে হইচই পড়ে গিয়েছে ক্যালিফোর্নিয়াতে৷

ডা. উইলিয়াম ইডেলম্যান ক্যালিফোর্নিয়ার একজন আয়ুর্বেদিক চিকিৎসক৷ চার বছরের শিশুর মেজাজ নিয়ন্ত্রণে তিনি চিকিৎসাপত্রে স্বল্প মাত্রায় গাঁজা খাওয়ানোর পরামর্শ দেন বলে সে দেশের সংবাদ মাধ্যমে খবর৷

তবে আরও অদ্ভুদ দাবি করেছেন খোদ শিশুটির বাবা৷ তার দাবি, শৈশবে তিনিও ‘বাইপোলার ডিসঅর্ডার এবং এটেনশন ডেফিসিট ডিসঅর্ডার’ এ ভুগেছেন এবং নানা ওষুধ খেয়েও করে কোনো উপকার পাননি৷ বড় হয়ে গাঁজা সেবন শুরু করার পর তার মেজাজ ঠান্ডা হয়েছে এবং তিনি স্ত্রী-সন্তানদের সঙ্গে ভাল আচরণ শুরু করেছেন৷ “এমনকি আমার বড় ছেলেরও একই সমস্যা ছিল এবং তার ক্ষেত্রেও গাঁজা ভালো ফল দিয়েছে,” বলেন তিনি৷ স্কুলের একজন সেবিকাকে দুপুরের খাবারের সময় শিশুটিকে গাঁজার তৈরি কুকিজ খাওয়াতে বললে বিষয়টি জানাজানি হয়৷

আয়ুর্বেদ চিকিৎসক ইডেলম্যান প্রায় সাত বছর আগে শিশুটির চিকিৎসা করার সময় গাঁজা খাওয়ানোর কথা বলেছিলেন বলে সংবাদ মাধ্যম সূত্রে জানা গিয়েছে৷ ২০১২ সালে শিশুটির বাবা তাকে ডা. ইডেলম্যানের কাছে নিয়ে যান৷ তখনই শিশুটিকে শান্ত রাখতে স্বল্প মাত্রায় গাঁজা সেবন করানোর পরামর্শ দেন ইডেলম্যান৷ যার প্রেক্ষিতে মেডিকেল বোর্ড অব ক্যালিফোর্নিয়া ওই চিকিৎসকের লাইসেন্স বাতিল করার নির্দেশ দেয়৷ যদিও ওই নির্দেশের বিরুদ্ধে তিনি আপিল করেছেন৷