নয়াদিল্লি: সেনাবাহিনীতে মহিলাকর্মী নিয়োগের ক্ষেত্রে কড়া নির্দেশ দিল সুপ্রিম কোর্ট।

মঙ্গলবার আট মহিলা অফিসারকে কমিশনে পদোন্নতির জন্য চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে বলেছে সুপ্রিম কোর্ট। ২০১০ সালে সেনাবাহিনীতে নিয়োগের জন্য মামলা করেছিলেন। সেই মামলার শুনানি চলাকালীন এদিন কড়া নির্দেশ দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট।

এদিন এই প্রসঙ্গে ডিওয়াই চন্দ্রচূড়ের বেঞ্চ বলে, ‘আমরা এই বিষয়ে বিল আনতেই পারি কিন্তু আমরা সেনাকে একটা সুযোগ দিতে চাই।’

মঙ্গলবার শুনানি চলাকালীন সুপ্রিম কোর্ট মহিলাদের এই নির্দেশই দেয়। ঐশ্বর্য ভাটি, মহিলা সেনাকর্মীদের আইনজীবী জানান স্থায়ী ভাবে মহিলাদের সেনাবাহিনীতে যোগদানের ক্ষেত্রে লিঙ্গ বৈষম্য রাখা উচিত নয়।

আগামী বৃহস্পতিবার পর্যন্ত সময় দিয়ে কেন্দ্রীয় আইনজ্ঞ সঞ্জয় জৈনকে এই বিষয়ে ইতিবাচক মনোভাব নিয়ে তথ্য পেশ করতে বলেছে ভারতের সর্বোচ্চ আদালত।

ইতিমধ্যেই শর্ট সার্ভিস কমিশনের(এসএসসি) মাধ্যমে ভারতীয় বায়ু সেনা ফাইটার জেটের পাইলট- সহ সমস্ত পদে মহিলাকর্মীদের নিয়োগ করা শুরু হয়েছে।

নৌসেনাতেও বিভিন্ন ক্ষেত্রে শুরু হয়েছে মহিলাদের নিয়োগ।

এর আগে ২০১০ সালে দিল্লি হাইকোর্টও এসএসসির মাধ্যমে সেনাতে মহিলা নিয়োগের পক্ষেই রায় দেয়। ভারতীয় নৌ ও বায়ু সেনা এই রায়কে স্বাগত জানালেও এই রায়ের বিরুদ্ধে যায় ভারতীয় সেনাবাহিনী।

গত বছরই মহিলাদের সেনাবাহিনীতে নিয়োগের বিষয়ে উৎসাহ প্রকাশ করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। গতবছরই ২৬শে জানুয়ারি গণতান্ত্রিক দিবসে লালকেল্লার এক ভাষণে এই কথাই জানান প্রধানমন্ত্রী