লন্ডন: কোর্টে না-নেমেই প্রাক্তন বিশ্বসেরা টেনিস তারকাকে টপকে গেলেন নোভাক জকোভিচ। যুক্তরাষ্ট্র ওপেনের চতুর্থ রাউন্ডে স্ট্যান ওয়ারিঙ্কার বিরুদ্ধে ম্যাচের মাঝপথেই চোটের জন্য কোর্ট ছাড়েন সার্বিয়ান তারকা। তার পর থেকে কোর্টের বাইরে রয়েছেন তিনি। চলতি মাসের শেষে জাপান ওপেনে খেলতে নামার কথা নোভাকের। তবে তার আগেই এটিপি’র তরফে সুখবর পেলেন ‘জোকার’।

সব থেকে বেশি সপ্তাহ বিশ্বব়্যাংকিংয়ের শীর্ষে থাকার নিরিখে জকোভিচ টপকে গেলেন কিংবদন্তি জিমি কনর্সকে। ৮টি গ্র্যান্ড স্ল্যাম জয়ী প্রাক্তন মার্কিন তারকা তাঁর ২৪ বছরের দীর্ঘ পেশাদার কেরিয়ারে মোট ২৬৮ সপ্তাহ বিশ্বব্যাংকিংয়ের শীর্ষে ছিলেন। চলতি সপ্তাহে জোকার এটিপি’র এক নম্বর তারকা হিসেবে ২৬৯ সপ্তাহে পা দিলেন। সর্বকালীন তালিকায় কনর্সকে টপকে জকোভিচ উঠে এলেন চার নম্বরে।

এই নিরিখে বিশ্বরেকর্ড রয়েছে সুইস কিংবদন্তি রজার ফেডেরারের দখলে। সর্বাধিক ২০টি গ্র্যান্ড স্লাম জয়ী ফেডেক্স সব মিলিয়ে ৩১০ সপ্তাহ বিশ্বের এক নম্বর টেনিস তারকা ছিলেন। দ্বিতীয় স্থানে রয়েছেন প্রাক্তন মার্কিন তারকা পিট সাম্প্রাস। তিনি সব মিলিয়ে ২৮৬ সপ্তাহ এক নম্বর বিশ্বব্যাংকিং ধরে রেখেছিলেন। তৃতীয় স্থানে রয়েছেন চেক তারকা ইভান লেন্ডল, যাঁকে অচিরেই টপকে যেতে চলেছেন জকোভিচ। লন্ডন মোট ২৭০ সপ্তাহ বিশ্বের এক নম্বর টেনিস তারকা ছিলেন।

সেপ্টেম্বরের শেষে নতুন এটিপি ব্যাঙ্কিং তালিকা প্রকাশিত হওয়ার সময় জোকোভিচ বিশ্বের এক নম্বর তারকা হিসেবে ২৭১ সপ্তাহে পা দেবেন। সুতরাং, ইভানকে টপকানো জোকারের কেবল সময়ের অপেক্ষা। অর্থাৎ অক্টোবরে পা দিলেই সব থেকে বেশি সপ্তাহ বিশ্বব্যাংকিংয়ের শীর্ষে থাকা টেনিস তারকাদের তালিকায় তৃতীয় স্থানে উঠে আসবেন নোভাক।

২০ জানুয়ারী ২০২০ পর্যন্ত ব্যাংকিংয়ের শীর্ষে থাকলে জোকোভিচ টপকে যাবেন পিট সাম্প্রাসকে এবং তালিকার দ্বিতীয় স্থানে উঠে আসবেন। রজার ফেডেরারকে টপকে বিশ্বরেকর্ড গড়তে হলে জোকারকে এক নম্বর স্থান ধরে রাখতে হবে ৭ জুলাই ২০২০ পর্যন্ত।