স্টাফ রিপোর্টার, কোচবিহার: শহরকে পরিবেশবান্ধব করে তুলতে কোচবিহারের আটটি দিঘি সংস্কারের উদ্যোগ নিল কোচবিহার পুরসভা। আগেই কোচবিহার শহরকে গ্রিন সিটি প্রকল্পের আওতায় নিয়ে এসেছে রাজ্য সরকার৷

ওই প্রকল্পেই প্রায় ৪ কোটি টাকা ব্যয়ে দিঘিগুলির সংস্কার করা হবে৷ মঙ্গলবার আনুষ্ঠানিকভাবে দিঘি সংস্কারের কাজ শুরু হল৷

আরও পড়ুন: তাহলে কি বিজেপিতেই যাচ্ছেন বাইচুং?

দিঘিগুলির পাড় বাঁধানো ছাড়াও সেখানে পর্যাপ্ত আলোর ব্যবস্থা করা হবে। এছাড়াও সকালে বা বিকেলে মানুষ যাতে দিঘির চারপাশে হাঁটতে পারেন সে জন্য চারপাশে ফুটপাথ তৈরি করা হবে৷ এছাড়াও বাড়তি রোজগারের জন্য দিঘিগুলিতে মাছ চাষেরও ব্যবস্থা করা হবে।

কোচবিহার পুরসভার চেয়ারম্যান বলেন, ‘‘এক সময় কোচবিহারে ৩০টিরও বেশি দিঘি ছিল৷ এখন সেগুলির মধ্যে বেশিরভাগই হারিয়ে গিয়েছে। তাই দিঘি সংস্কারের উদ্যোগ৷’’ পুরসভা সূত্রের খবর, দিঘিগুলি পরিষ্কার রাখতে দিঘিগুলিতে যে নালাগুলি এসে পড়েছে, সেগুলি বন্ধ করা হবে। দিঘি সংলগ্ন এলাকার নর্দমাগুলিও সংস্কার করা হবে এই প্রকল্পের মাধ্যমে।

আরও পড়ুন: প্রকাশ্যে ধূমপানে রাশ টানতে চলেছে স্বাস্থ্য দফতর

কোচবিহারের দিঘিগুলি মৎস্য দফতরের অধীন৷ দিঘি সংস্কারের পর সেখানে মাছ চাষ করবে মৎস্য দফতর৷ স্বভাবতই পুরসভার এহেন উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়ে জেলা মৎস্য আধিকারিক অলোক প্রহরাজ বলেন, ‘‘এর ফলে কোচবিহার শহরের জলাশয়গুলি পুরনো গৌরব ফিরে পাবে।’’

এদিন কোচবিহারের মৈত্রী সংঘের কাছে কাইয়া দিঘির পারে এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে প্রকল্পের আনুষ্ঠানিক সূচনা করেন কোচবিহার পুরসভার চেয়ারম্যান ভূষণ সিং। অনুষ্ঠানে হাজির ছিলেন স্থানীয় কাউন্সিলর অর্চনা ওঝা।

আরও পড়ুন: বাইচুং-তৃণমূল সম্পর্ক নিয়ে চাঞ্চল্যকর তথ্য ফাঁস করলেন মুকুল!