প্রতীকী ছবি

ইন্দোর: হায়দরাবাদে ধর্ষণ-কাণ্ডের প্রতিবাদে, ধর্ষকদের কঠোর শাস্তির দাবিতে প্রতিবাদের ঝড় উঠেছে দেশ জুড়ে। এর মাঝেই সামনে এল আরও একটি চাঞ্চল্যকর ধর্ষণের ঘটনা। চার বছরের শিশুকন্যাকে ধর্ষণ করে হত্যার অভিযোগ উঠেছে এক ডিজের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ভোপালের ইন্দোর শহরের মৌ অঞ্চলে।

মধ্যপ্রদেশ পুলিশের তরফ থেকে জানানো হয়েছে ইতিমধ্যেই অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়েছে। অভিযোগ, বুধবার রাতে ফুটপাথে মা বাবার সঙ্গে ঘুমাচ্ছিল শিশুটি। তখনই তাঁকে তুলে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করে অভিযুক্ত। সিসিটিভি ফুটেজে দেখা যায় রাত ২:১৫ নাগাদ ওই অভিযুক্তকে দেখা যায়। মেয়েটিকে তুলে নিয়ে ছুটে যাওয়ার সময়ে তাঁকে কুকুর তাড়া করলে তাঁদের দিকে ঢিল ছুঁড়তেও দেখা যায়। এরপরেই সিসিটিভি ফুটেজে দেখা যায় ঘটনাস্থল থেকে ছুটে পালিয়ে যেতে।

ওই এলাকার প্রায় ৫০টি সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখে অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।পুলিশ সূত্রে খবর শিশুটিকে ধর্ষণের পর গলায় ফাঁস লাগিয়ে হত্যা করে ওই অভিযুক্ত।

এই প্রসঙ্গে এক পুলিশ কর্তা বলেন, ‘অভিযুক্তকে ধরতে ওই অঞ্চলের বিভিন্ন সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখা হয়েছে। একটি পরিত্যক্ত বহুতল থেকে প্লাস্টিকে মোড়া অবস্থায় ওই শিশুটির মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। ওই অঞ্চলের ২০০ মিটারের মধ্যে থাকা সমসত সিসিটিভি ফুটেজ দেখে অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়।’

পুলিশের তরফ থেকে জানানো হয় অভিযুক্তের বিরুদ্ধে এর আগেও ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। গত বছরেই এক সত্তরোর্ধ্ব বৃদ্ধাকে ধর্ষণের চেষ্টা করেন ওই অভিযুক্ত। এই কাজ করতে গিয়ে অটোচালকদের হাতে বেদম মারও খায় সে। সেবার কোনও অভিযোগ জমা করা হয়নি বলে জানিয়েছে পুলিশ।