স্টাফ রিপোর্টার, বালুরঘাট: এখন থেকে একজনের রেশনকার্ডে অন্য কেউ রেশনের মালপত্র তুলতে পারবেন না। বয়স্ক বা অসুস্থ কেউ থাকলেও সেক্ষেত্রে কার্ড হোল্ডারের পরিচয়পত্র সমেত লিখিত চিঠি দেখিয়ে তবেই অন্য কেউ মালপত্র তুলেতে পারবেন। রেশন পরিষেবায় স্বচ্ছতা আনতে এই নির্দেশিকাই জারি করেছে দক্ষিণ দিনাজপুর জেলাপ্রশাসন। ইতিমধ্যেই প্রশাসনের তরফে এই ব্যাপারে নজরদারি চালাতে জেলার বিভিন্ন রেশন দোকানে অভিযান শুরু হয়েছে। প্রশাসনের এহেন অভিনব উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন সাধারণ গ্রাহক থেকে শুরু করে রেশন সংগঠনগুলিও।

জানা গিয়েছে, রেশন ব্যবস্থা নিয়ে যাতে গ্রাহকদের পক্ষ থেকে কোনও রকম অভিযোগ না ওঠে এবং সরকারি রেশন ব্যবস্থার সুবিধা প্রকৃত গ্রাহকরাই যাতে পান, তার জন্য জেলার সমস্ত এসডিও বিডিও ম্যাজিস্ট্রেট ও ডেপুটি-ম্যাজিস্ট্রেটদের নিয়ে বিশেষ নজরদারি কমিটি গঠন করেছে প্রশাসন। কমিটির সদস্যরা বিভিন্ন রেশন দোকানে গিয়ে অভিযান চালিয়ে দেখছেন যে, সেখানে গ্রাহকরা ঠিক মতো মালপত্র পাচ্ছেন কি না এবং গ্রাহকদের কোনও রকম অভিযোগ রয়েছে কি না।

এমনকী, একজনের রেশন কার্ডে অন্য কেউ মাল তুলে নিচ্ছে কি না, এই বিষয়ে রেশন দোকানগুলিতে গিয়ে প্রশাসনের তরফে স্পষ্ট করে জানিয়ে দেওয়া হচ্ছে যে এখন থেকে অসুস্থ ও বয়স্ক ব্যতিরেকে প্রকৃত কার্ডহোল্ডার ছাড়া অন্য কেউ রেশনের মালপত্র তুলতে পারবেন না। বয়স্ক বা অসুস্থতা জনিত কোনও কারণে কেউ যদি দোকানে পৌঁছাতে না পারেন, তাহলে কার্ড হোল্ডারের সই করা চিঠি ও পরিচয়পত্র দেখিয়ে তবেই তাঁর প্রতিনিধি মাল তুলতে পারবেন। এমনই নির্দেশিকা দিয়েছে জেলা প্রশাসন।

বেঙ্গল ফেয়ার প্রাইস ডিলার্স-এর রাজ্য সভাপতি মিহির কুমার দাস জানিয়েছেন, প্রকৃত গ্রাহকদের কাছে রেশন পরিষেবার সুবিধা পৌঁছে দিতে ডিলাররা বদ্ধ পরিকর। এক্ষেত্রে প্রশাসনের এই উদ্যোগ সত্যিই প্রশংসনীয়।

বালুরঘাট সদর মহকুমা শাসক ঈশা মুখোপাধ্যায় জানিয়েছেন, অভিযানে বেরিয়ে তাঁরা কয়েকটি জায়গায় লক্ষ্য করেছেন যে একজনের হাতে অন্যজনের রেশন কার্ড। আবার অনেক সময় এমনও অভিযোগ তাঁদের কাছে আসে যে, ডিলারদের একাংশের কাছে গ্রাহকদের রেশনকার্ড আগে থেকেই মজুত করা রয়েছে। এমতাবস্থায় যাতে রেশন পরিষেবার সুবিধা সত্যিকারের গ্রাহকরা পেতে পারেন সেই কারণেই এই নির্দেশিকা বলে তিনি জানিয়েছেন। শুধু তাই নয়, পুরসভা এলাকায় মানুষদের নিয়ে ওয়ার্ড ভিত্তিক কমিটিও গঠনের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সেই সেই কমিটি গুলি এই রেশন ব্যবস্থা তদারকি করবেন বলে জানা গিয়েছে।