স্টাফ রিপোর্টার, বারাসত: করোনা ভাইরাস নিয়ে দেশজুড়ে আতঙ্কের পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছে। ইতিমধ্যে করোনায় আক্রান্ত হয়ে ২ জনের মৃত্যু হয়েছে। পরিস্থিতি সামাল দিতে রাজ্য ও কেন্দ্র সরকার চূড়ান্ত সতর্কতা জারি করেছে। যদিও এরাজ্যে এখনও পর্যন্ত করোনা আক্রান্তের কোনও খবর মেলেনি। তবে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ করতে সবরকম ভাবে প্রস্তুতি নিয়ে ফেলেছে, উত্তর ২৪ পরগনার বারাসাত জেলা হাসপাতাল।

উত্তর ২৪ পরগনা জেলায় এখনও করোনা আক্রান্ত কোনও রোগীর সন্ধান মেলেনি। তবে রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরের নির্দেশে, করোনাভাইরাস নিয়ে সতর্কতায় কোয়ারেন্টাইন বা পৃথক ওয়ার্ড তৈরি করা হয়েছে এই হাসপাতালে। জেলার সদর হাসপাতাল হল বারাসাত জেলা হাসপাতাল। আর জেলার এই সদর হাসপাতালে যুদ্ধকালীন তৎপরতায় করোনা আক্রান্তদের চিকিৎসার জন্য তৈরী হয়েছে নতুন ভবনে পৃথক ওয়ার্ড।

শুধু তাই নয়, ওই ভবনে নির্দিষ্ট দায়িত্ব প্রাপ্ত ডাক্তার ছাড়া অন্য কোনও ব্যাক্তির প্রবেশ নিষেধ। বর্তমানে সেখানে একটি আইসোলেশান ওয়ার্ডও তৈরি করা হয়েছে। তবে এখনও পর্যন্ত বারাসাত জেলা হাসপাতালে করোনা আক্রান্ত বা করোনা সন্দেহভাজন কোনও রোগী ভরতি হয়নি বলে জানা গিয়েছে।

হাসপাতাল সূত্রে খবর, পৃথকিকরণের জন্য প্রায় ৭০টি বেড ও আইসোলেশানের জন্য ১০টি বেড তৈরি আছে। সেইসঙ্গে সবরকম নিরাপত্তা ব্যবস্থাও নেওয়া হয়েছে হাসপাতালে। রাজ্য স্বাস্থ্যদফতরের নির্দেশে এই উদ্যোগে নেওয়া হয়েছে। জানাগেছে যারা বিদেশ থেকে দেশে ফিরছে তাদেরকে এই কোয়ারেন্টাইন ওয়ার্ডে রাখা হবে পর্যবেক্ষণের জন্য।

১৪ দিন তাদের এই ওয়ার্ডে রাখা হবে। যদি এই সময়ের মধ্যে তাঁদের শরীরে করোনার কোনও উপসর্গ দেখা দেয়, তবেই তাঁদের আইসোলেশান ওয়ার্ডে পাঠানো হবে। পরিস্থিতি জটিল হলে কলকাতার বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালে পাঠানো হবে বলে জানাগেছে।

Proshno Onek II First Episode II Kolorob TV