স্টাফ রিপোর্টার, বারাকপুর: মুখ্যমন্ত্রীর ঘোষণার কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই গাইঘাটায় বিশ্ববিদ্যালয় প্রকল্পের জমিতে সাইনবোর্ড বসিয়ে দিল উত্তর ২৪ পরগনা জেলা প্রশাসন৷ বৃহস্পতিবারই উত্তর ২৪ পরগনার ঠাকুরনগরে হরিচাঁদ ও গুরুচাঁদ ঠাকুরের নামে বিশ্ববিদ্যালয় গড়ে তোলা হবে বলে ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়৷

বৃহস্পতিবার ঠাকুরনগরে সর্বভারতীয় মতুয়া মহাসংঘের আশ্রমে গিয়ে হরিচাঁদ ও গুরুচাঁদ ঠাকুরের নামে বিশ্ববিদ্যালয় গড়ে তোলার প্রতিশ্রুতি দেন মুখ্যমন্ত্রী৷ গাইঘাটা ব্লকের চাঁদপাড়া এলাকায় কৃষি দফতরের ৮.৮ একর জমিতে এই বিশ্ববিদ্যালয় গড়ে তোলা হবে বলে মঞ্চে দাঁড়িয়ে ঘোষণা করেন মমতা৷

বৃহস্পতিবারই যাতে ওই প্রকল্প এলাকায় প্রশাসনের পক্ষ থেকে বোর্ড লাগিয়ে দেওয়া হয়, তার নির্দেশও দেন তিনি৷ সেই নির্দেশই অক্ষরে অক্ষরে পালন করল উত্তর ২৪ পরগনা জেলা প্রশাসন। মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশের কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই বিশ্ববিদ্যালয় নির্মানের জন্য বরাদ্দ জমিতে লাগিয়ে দেওয়া হল সাইনবোর্ড।

তিনি বলেন “বিশ্ববিদ্যালয় তৈরির জন্য জমি ইতিমধ্যেই চিহ্নিত করা হয়ে গিয়েছে। এই জমি এরপর রাজ্যের শিক্ষা মন্ত্রকের হাতে তুলে দেওয়া হবে। তারাই প্রয়োজনীয় সমস্ত ব্যবস্থা নেবে”৷ প্রশাসন সূত্রের খবর, খুব শীঘ্রই এই বিশ্ববিদ্যালয় গড়ে তোলার কাজও শুরু করে দেবে জেলা প্রশাসন। মুখ্যমন্ত্রীর কাছ থেকে বিশ্ববিদ্যালয় উপহার পেয়ে ভীষণ খুশি স্থানীয়রা।

উত্তর ২৪ পরগণার চাঁদপাড়াতে হরিচাঁদ ঠাকুর ও গুরুচাঁদ ঠাকুরের নামে ওই বিশ্ববিদ্যালয়টি তৈরি করার কথা আগেই জানিয়ে ছিলেন৷ সেই মতো কাজ শুরু হয়ে যাবে বলে প্রতিশ্রুতি দিয়েছে প্রশাসন৷ এই বিশ্ববিদ্যালয় তৈরি করতে মোট জমি লাগবে ৮.১ একর। সর্বভারতীয় মতুয়া মহাসংঘের সদর দফতর থেকে এই বিশ্ববিদ্যালয়টির দূরত্ব ৫ কিলোমিটার। মতুয়াদের ‘বড়মা’র জন্ম শতবার্ষিকী উপলক্ষে একটি অনুষ্ঠানে এসে এই ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী।