বি-টাউনের অন্যতম সেক্সিয়েস্ট অভিনেত্রীদের মধ্যে দিশা পাটানি একজন! সিনেমা জগতে তো বটেই! ফ্যাশন জগতেও বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছেন তিনি৷ বিভিন্ন সাহসি পোশাক এবং তাঁর বোল্ড লুক প্রায়ই ঝড় তোলে সোশ্যাল মিডিয়ায়৷ চোখ ধাঁধানো তাঁর একের পর এক ছবি রীতিমত উষ্ণতার পারদ ছড়ায় নেটদুনিয়ায়। কখনও শাড়িতে তো কখনও সালওয়ারে৷ আবার ওয়েস্টার্নে সমানভাবে সুন্দরী অভিনেত্রী৷ দিশার ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টের স্পেশ্যালিটি হল দিশার বিকিনি পিকচারস৷

সম্প্রতি তাঁর ট্যুইটার অ্যাকাউন্টে ঝড় উঠেছে৷ শুধু অন্তর্বাস পরে রয়েছে নায়িকা। কালো অন্তর্বাস, দিশার হট ফিগার সঙ্গে তাঁর সেক্সি বডি ল্যাঙ্গুয়েজ, সব মিলিয়ে আট থেকে আশির ঘুম উড়েছে৷ দিশার এই ধরণের সাহসী পোশাক পরার জন্য তাঁকে প্রায়ই নানা কটাক্ষের সম্মুখীন হতে হয়৷

এবারই প্রথম নয়, এর আগেও সাহসী পোশাকে নিজের ছবি দিয়েছে দিশা। দিপাবলীতেও অন্তর্বাসের সঙ্গে লেহেঙ্গা পরে তাক লাগিয়েছিলেন সকলকে৷ বেইজ রঙের একটি লেহেঙ্গার সঙ্গে অন্তর্বাস পরে ছিলেন৷ সঙ্গে হালকা গয়নাও ছিল৷ সেই ছবি নিয়ে শুরু হয়েছিল অন্য বিতর্ক৷

প্রথমে আপলোড করা লেহেঙ্গার ছবিতে নাকি দিশার অন্তর্বাসটি অতিরিক্ত রিভিলং ছিল৷ ছবিটা দীপিবলীর জন্য অ্যাপ্রোপ্রিয়েট নয় বলে মনে হয়েছিল দিশার৷ সেই ছবিটি ফোটোশপ করে পরে রিআপলোড করেন৷

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনা পরিস্থিতির জন্য থিয়েটার জগতের অবস্থা কঠিন। আগামীর জন্য পরিকল্পনাটাই বা কী? জানাবেন মাসুম রেজা ও তূর্ণা দাশ।