সাধারণ মানুষের কাছে অল্প বাজেটের ফোনের ক্ষেত্রে অত্যন্ত জনপ্রিয় ব্র্যান্ড গুলির মধ্যে অন্যতম vivo. এমনকি আন্তর্জাতিক বাজারেও যথেষ্ট জনপ্রিয় ব্র্যান্ড vivo. তাদের তরফে বারংবার বাজারে আনা হয়েছে একাধিক ফোন।

ক্রেতাদের চাহিদা অনুসারে এই ফোন আনা হয়েছে বেশ কয়েকটি আলাদা রঙে । অত্যন্ত অল্প দামের মধ্যে এই ফোন পাওয়াতে সুবিধা হবে সাধারণ মানুষের। অ্যামাজনে ক্রেতাদের জন্য vivo y20 পাওয়া যাবে ২৪ শতাংশ ছাড়ে। অর্থাৎ ক্রেতারা এই ফোন কিনতে পারবেন মাত্র ১২৯৯০ টাকাতে। এর ফলে ক্রেতারা বাঁচাতে পারবেন ৪ হাজার টাকা । এছাড়াও এই ফোনে রয়েছে সহজ ই এম আইয়ের সুবিধা। এছাড়াও রয়েছে এক্সচেঞ্জ অফারের সুবিধা।

 

এই মুহূর্তে ফোন কেনার ক্ষেত্রে ক্রেতাদের কাছে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ের মধ্যে একটি হল ব্যাটারি। এই ফোনে রয়েছে ৫০০০ mah ব্যাটারি। তার সঙ্গে রয়েছে ১৮ ডবলু দ্রুত চার্জের সুবিধা। এছাড়াও এই ফোনে রয়েছে otg ব্যবহারের সুবিধাও। নিরাপত্তার জন্য এই ফোনে রয়েছে ফিঙ্গার প্রিন্ট সেন্সর। vivo-র এই ফোনে রয়েছে qualcomm snapdragon processor । যার ফলে এর স্পিড বেশ বেশি।

ক্যামেরা আজকের দিনে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়। সেই কথা মাথাতে রেখে এই ফোনে রয়েছে ১৩ মেগা পিক্সেল rear ক্যামেরা। এছাড়াও এই ফোনে রয়েছে ২ মেগা পিক্সেল bokeah ক্যামেরাও। তার সঙ্গে গেম খেলার ক্ষেত্রেও রয়েছে অতিরিক্ত সুবিধা। ফলে এই ফোন ক্রেতাদের কাছে এই মুহূর্তে যে সেরা বিকল্প হয়ে উঠবে তা নিঃসন্দেহে বলাই যায়। এছাড়া এই ফোনে মেমরি কার্ড ব্যবহারের সুবিধা রয়েছে। তার সঙ্গে রয়েছে উন্নত ডিসপ্লে।

এছাড়া এই ফোনে রয়েছে android 10। এই মুহূর্তে অল্প দামের মধ্যে ফোন খোঁজার ক্ষেত্রে সেরা বিকল্প হতে পারে এই ফোন। দাম খুব একটা বেশি না হওয়ার ফলে একাধিক মানুষ এই ফোন কিনতে পারবেন। এছাড়া একাধিক ফিচার থাকার ফলে তা ব্যবহার করতেও পারবেন সহজে।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.