স্টাফ রিপোর্টার, বারাকপুর: রাজ্য সরকারের স্বাস্থ্য দফতরের সহযোগিতায় উত্তর ২৪ পরগণার খড়দহের দোপেড়িয়া গ্রামে আয়োজিত হল প্রতিবন্ধী সনাক্তকরণ ও শংসাপত্র প্রদান কর্মসূচি। খড়দহ মানব কল্যাণ মঞ্চের পরিচালনায় ও বারাকপুর বিএনবসু মহকুমা হাসপাতালের সহযোগিতায় বুধবার আয়োজিত হল এই প্রতিবন্ধী সনাক্তকরণ শিবির।

এই শিবিরে বারাকপুর বিএনবসু মহকুমা হাসপাতালের সুপার সুদীপ্ত ভট্টাচার্যের নেতৃত্বে পনেরো জনের চিকিৎসকদের একটি দল উপস্থিত ছিলেন৷ তাঁরাই এই শিবিরে অংশ নেওয়া প্রতিবন্ধীদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করে দেখেন। এই প্রতিবন্ধী সনাক্তকরণ ও শংসাপত্র প্রদান শিবিরে উপস্থিত হয়ে সাংসদ সৌগত রায় জানান, দমদম সংসদীয় এলাকার খড়দহের গ্রামাঞ্চল এলাকার মানুষদের জন্য যে উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে তা সত্যিই সমাজের কাছে এক অন্য বার্তা পৌঁছে দেবে৷ প্রতিবন্ধীরা এখান থেকে শংসাপত্র পেলে ভবিষ্যতে তাদের তা রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে আর্থিক সহযোগিতা পেতে পারবে।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বারাকপুর ২ নম্বর ব্লকের পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি শুকুর আলি৷ তিনি বলেন, ‘মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অনুপ্রেরণায় যে মানবিক প্রকল্প তৈরি করা হয়েছে৷ সেই প্রকল্পকে বাস্তব রূপদান করতেই আমরা আজকে এই প্রতিবন্ধী সনাক্তকরণ ও শংসাপত্র প্রদান শিবিরের আয়োজন করেছি৷ আমাদের প্রতিবন্ধী ভাই বোনের পাশে দাঁড়াতেই এমন উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে৷ যাতে প্রকৃত প্রতিবন্ধীরা রাজ্য সরকারের কাছ থেকে মাসিক এক হাজার টাকা আর্থিক ভাতা পেতে পারে।’