মুম্বই : ‘বিগ বস’ ১২-র বিজেতা দীপিকা কক্কড়কে অ্যাসিড হামলার হুমকি৷ তাও আবার ‘বিগ বস’ ১২-র আরেক প্রতিযোগী শ্রীশন্তের ডাই হার্ড ফ্যানেরা৷ নেটদুনিয়ায় একেই তাকে ট্রোল করা হয়, এমনকি জীবনের হুমকি দেওয়া আজকাল তেমন বড় ব্যাপার নয়৷ তবে কাউকে জীবনের হুমকি যে মোটেই সাহসিকতার পরিচয় নয় তা বুঝিয়ে দিল দীপিকার ভক্তরা৷ দীপিকার হয়ে তারাই লড়ছে সেই শ্রী-ফ্যানের বিরুদ্ধে৷

এক ব্যক্তিই এতটাই ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠে যে সে দীপিকার মুম্বইয়ের বাস উঠিয়ে ছাড়বে বলেছে৷ সে লিখেছে, সে মুম্বইয়ের বাসিন্দা নয়, তবুও মুম্বইতে আসবে দীপিকার খুন করতে৷ দীপিকাকে সামনে পেলেই অ্যাসিড হামলা করে মেরে ফেলবে অভিনেত্রীকে!

দীপিকার ফ্যানক্লাবের নজরে আসতেই তারা সেই ব্যক্তির পোস্টের স্ক্রিনশট নিয়ে ট্যুইটারে মুম্বই পুলিশকে ট্যাগ করে লেখে, “এই ব্যক্তিটি একজন মহিলাকে অ্যাসিড হামলার হুমকি দিচ্ছে৷ যত শীঘ্র সম্ভব একে গ্রেফতার করুন৷”

দীপিকা যদিও এ বিষয় কোনও মন্তব্য করেননি৷ নেটিজেনদের মতে, শ্রীশন্তের এই ভক্ত শ্রীশন্তের হার মেনে নিতে পারেনি৷ দীপিকার উইনার হওয়া তার ক্ষোভের কারণ৷ অনেকে এও বলছে যে এই ব্যক্তি মানসিক ভারসাম্যহীন৷

নয়তো একজন সেলেব্রিটির না জেতায়, আরেকজন তারকাকে প্রাণের হুমকি দেওয়াটা মোটেই সুস্থ মস্তিষ্কের পরিচয় নয়৷ বিগ বস শেষ হতে দীপিকা, শ্রীশন্ত একসঙ্গে পার্টিতে মজেছিলেন৷ তাঁদের মধ্যেও কোনও সমস্যা নেই৷ হঠাৎ এই অন্ধভক্তের আবির্ভাব হওয়ায় তাঁদের সমীকরণ কোথায় গিয়ে দাঁড়াবে তা নিয়েও চর্চা শুরু হয়েছে সাইবারদুনিয়ায়৷

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনা পরিস্থিতির জন্য থিয়েটার জগতের অবস্থা কঠিন। আগামীর জন্য পরিকল্পনাটাই বা কী? জানাবেন মাসুম রেজা ও তূর্ণা দাশ।