নয়াদিল্লি:রেল বাজেট পেশ করেই রেলমন্ত্রীর পদ হারিয়েছিলেন দীনেশ ত্রিবেদী৷ ঘটনাটি ২০১২ সালের৷ সেবার তিনি ২০১২-১৩ সালের জন্য রেল বাজেট পেশ করেছিলেন৷ তখন কেন্দ্রে চলছে ইউপি আমল এবং মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দল তৃণমূল কংগ্রেস ছিল ইউপিএ-র শরিক৷ কিন্তু তাঁর দলের তৃণমূল কংগ্রেসর এক প্রতিনিধি হিসেবে দীনেশ ত্রিবেদীর পেশ করা বাজেট পেশ পছন্দ না হওয়ায় তখন মমতা দীনেশকে সরিয়ে মুকুল রায়কে রেলমন্ত্রী করেছিলেন৷

দীনেশ ত্রিবেদী সেবার রেল বাজেটে ভাড়া বাড়ানো প্রস্তাব দিয়েছিলেন৷ কারণ তাঁর মনে হয়েছিল সেই সময় রেলের যা আর্থির পরিস্থিতি তাতে ভাড়া বাড়ানো একান্ত প্রয়োজন৷ তৎকালীন রেলমন্ত্রী দাবি করেছিলেন, রেল আইসিইউ তে ছিল এবং তিনি সেখান থেকে বের করার চেষ্টা করেছেন৷

ট্রেনের ভাড়া বাড়ানো কথা জানতে পেরে ক্ষুব্ধ হয়েছিলেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ তখনই তিনি জানিয়েছিলেন, রেলের ভাড়া বৃদ্ধি তিনি সমর্থন করেন না৷ পাশাপাশি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তখন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংকে চিঠি দিয়ে রেলমন্ত্রী পরিবর্তন করার প্রস্তাব পাঠান৷ ওই সময় নতুন রেলমন্ত্রী হিসাবে তৃণমূলের পক্ষ থেকে প্রস্তাব পাঠান হয় তৎকালীন কেন্দ্রীয় জাহাজ প্রতিমন্ত্রী মুকুল রায়ের নাম। অন্য দিকে দীনেশ ত্রিবেদীকে কলকাতায় ডেকে পাঠানো হয়।

প্রশ্ন অনেক-এর বিশেষ পর্ব 'দশভূজা'য় মুখোমুখি ঝুলন গোস্বামী।