দেবময় ঘোষ, কলকাতা: বিজেপি শীর্ষ নেতৃত্ব রাজ্যে বিপুল সম্ভাবনা দেখেছে, তাই ইনভেস্ট করেছে। সোমবার এমনটাই জানালেন রাজ্য বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষ। সেই ইনভেস্টমেন্টের রিটার্ন সুদ সমেত আসবে বলেই মনে করছেন তিনি।

দিলীপ ঘোষ আরও জানান, বিজেপি ২৩ টার বেশিই আসন পাবে পশ্চিমবঙ্গে। মেদিনীপুর কেন্দ্র থেকেও বিজেপি জিতবে বলেই উল্লেখ করেন তিনি।

তিনি আরও জানান, এক্সিট পোল সামনে আসার পর অনেক রাজনৈতিক দলের বিধায়করা তাঁর সঙ্গে যোগযোগ করছে ও সৌজন্য বিনিময় করছেন। তবে এর পিছনে কিছু উদ্দেশ্য রয়েছে বলেই মনে করেন তিনি।

পড়ুন: মমতার সুরের সুর মিলিয়েই ইভিএম নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ চন্দ্রবাবুর

দিলীপ ঘোষ বলেন, প্রধানমন্ত্রীর কাছে ৪০ জনের দলবদলের সম্ভাবনার খবর আছে। রাজ্য বিজেপির কাছে ১০০ জনের খবর আছে। ধীরে ধীরে সেই খবর দিল্লিতে পৌঁছে যাবে বলেও জানান তিনি।

দিলীপ ঘোষ বলেন, ৪২ কেন্দ্রে যেখানেই বিজেপির প্রচার হয়েছে সেখানেই মানুষের ঢল নেমেছিল, তখন থেকেই ট্রেন্ড বুঝে গিয়েছিলাম৷ কংগ্রেস-তৃণমূল-বামপন্থীদের ভোট আমরা একযোগে পেয়েছি ৪২ টি কেন্দ্রে৷

পঞ্চায়েত ভোটে বেশ কিছু জেলায় ৩৫-৪০ শতাংশ ভোট পেয়েছিলাম৷ এবারেও আমাদের ৪০ শতাংশ ভোট ছাড়িয়ে যাবে বলে মনে হচ্ছে৷ ভোট বেশি পাব, আসন সংখ্যাও ২৩-এর বেশিই পাব৷

উনি এছাড়াও জানান, এক্সিট পোলের রেজাল্ট দেখার পর রাজ্যের বিভিন্ন দিকে সন্ত্রাস শুরু হয়েছে৷ তবে এই ঘটনা নতুন নয়৷ বিজেপি কর্মীরা দীর্ঘদিন ধরেই রাজ্যে মার খাচ্ছে৷ এই ভোটে যারা গোলমাল করতে পারে, এইরকম লোকেদের কেন্দ্রীয়বাহিনী আগেই বোতলবন্দি করে রেখেছিল৷ তবুও বেশ কিছু জায়গায় শাসকদল গোলমাল পাকিয়েছে৷