স্টাফ রিপোর্টার, চুঁচুড়া: করোনা সংক্রমণের আক্রান্তের সংখ্যার নিরিখে ব্রাজিলকে টপকে ইতিমধ্যেই বিশ্বের দ্বিতীয় স্থানে উঠে এসেছে ভারত। এই পরিস্থিতিতে বিজেপির রাজ্য সভাপতি বললেন, দেশ থেকে করোনা চলে গিয়েছে। শুধু শুধু ঢং করে লকডাউন করছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

সংক্রমণের শৃঙ্খল ভাঙতে ‘ব্রেক দ্য চেন’ নিয়মে রাজ্যে প্রতি সপ্তাহে দু’দিন করে চলছে সম্পূর্ণ লকডাউন। আর তাতেই ঘোর আপত্তি বিজেপির। তাঁরা বরাবর এর পিছনে রাজনৈতিক কারণ রয়েছে বলে মনে করেন। তাঁদের অভিযোগ, করোনা রুখতে নয়, আসলে বিজেপিকে রুখতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সরকারের এই লকডাউনের সিদ্ধান্ত।

হুগলির ধনেখালির একটি জনসভায় বিজেপির রাজ্য সভাপতি বলেন, “করোনা চলে গিয়েছে। তা সত্বেও দিদিমণি (পড়ুন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়) শুধু শুধু লকডাউন করে ‘ঢং’ করছেন। এর উদ্দেশ্যই হল, বিজেপি যাতে মিটিং-মিছিল না করতে পারে। কিন্তু আমরা মিছিল করবই। যেখানে বেরোব, সেখানেই মিছিল হবে। যেখানে দাঁড়াব, সেখানেই মিটিং হয়ে যাবে। কারও আটকানোর ক্ষমতা নেই। আমাদের মিটিংয়ের ভিড় দেখে দিদির ভাইদের শরীর খারাপ হয়ে যাচ্ছে। এই শরীর খারাপ করোনার জন্য নয়, বিজেপির জন্য হচ্ছে।”

প্রসঙ্গত, স্বাস্থ্য দফতর প্রকাশিত বৃহস্পতিবারের বুলেটিন অনুযায়ী, রাজ্যে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা হল ১ লক্ষ ৯৩ হাজার ১৭৫।রাজ্যে এখনও পর্যন্ত সক্রিয় করোনা রোগী ২৩ হাজার ৩৭৭ জন। এখনও পর্যন্ত করোনায় প্রাণ হারিয়েছেন মোট ৩ হাজার ৭৭১ জন।

ফলে এই পরিস্থিতিতে কীভাবে দিলীপ ঘোষ ‘করোনা চলে গেছে’ বলতে পারলেন, তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন অনেকেই।

পচামড়াজাত পণ্যের ফ্যাশনের দুনিয়ায় উজ্জ্বল তাঁর নাম, মুখোমুখি দশভূজা তাসলিমা মিজি।