স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহর সঙ্গে বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রস্তাবিত বৈঠক নিয়ে খোঁচা দিলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ৷ তাঁর বক্তব্য, সিএএ বিরোধী আন্দোলন ব্যর্থ হয়ে এখন মুখ দেখিয়ে নমস্কার করতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে যাচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী।

২৫ জানুয়ারি অর্থাৎ গতকাল ভুবনেশ্বর গিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ আগামী শুক্রবার ভুবনেশ্বরের একটি পাঁচতারা হোটেলে হতে চলেছে ইস্টার্ন রিজিওনাল সিকিউরিটি কাউন্সিলের বৈঠক। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের পৌরহিত্যে এই বৈঠকে উপস্থিত থাকবেন ৫টি রাজ্য বাংলা, বিহার, ওড়িশা, ঝাড়খন্ড ও ছত্রিশগড়ের মুখ্যমন্ত্রী, মুখ্যসচিব ও স্বরাষ্ট্রসচিবরা।

প্রস্তবিত এই বৈঠক প্রসঙ্গে বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেন, ‘‘আমি এই বৈঠকে খারাপ কিছু দেখছি না। সুন্দর প্রশাসন চালাতে একটি রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করবেন, এটাই স্বাভাবিক।’’ একই সঙ্গে তাঁর খোঁচা, ‘‘মুখ্যমন্ত্রীর সিএএ বিরোধী আন্দোলন ব্যর্থ হয়েছে। হয়তো তাই এখন তিনি মুখ দেখিয়ে নমস্কার করতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে যাচ্ছেন।’’

ইস্টার্ন রিজিওনাল সিকিউরিটি কাউন্সিলের বৈঠকের পর কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের সঙ্গে একান্তে বৈঠক হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। ওই বৈঠকে রাজ্যের পক্ষ থেকে রাজ্যের সঙ্গে সম্পৃক্ত সমস্ত অন্তর্দেশীয় বর্ডারের পরিস্থিতি নিয়ে একটি বিশেষ রিপোর্ট কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর হাতে তুলে দেওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলে সূত্রের খবর। যদিও এই বৈঠকের বিষয়ে সরকারি তরফে এখনও কিছু জানানো হয়নি।

উল্লেখ্য, গতবছর সেপ্টেম্বর মাসে বাংলার মুখ্যমন্ত্রী ও কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর মধ্যে বৈঠক হয়েছিল৷ দিল্লির নর্থ ব্লকে গিয়ে অমিত শাহর সঙ্গে বৈঠক করেছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে তিনি সরাসরি বলেছিলেন,রাজ্যে আর যাই হোক এনআরসির দরকার নেই।

 সেদিন বৈঠকের পর মুখ্যমন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেছিলেন, অসমে এনআরসি তালিকা থেকে বাদ পড়া ১৯ লক্ষের বিষয়ে কথা বলেছি।…স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে জানিয়েছি, এই বাদ পড়াদের মধ্যে বাঙালি ,হিন্দিভাষী গোর্খারাও রয়েছেন।এরা সকলেই ভারতীয়। তালিকা থেকে বাদ পড়ে এরা এখন আতঙ্কিত। তাঁদের বিষয়ে সরকার যেন নজর দেয়। মমতার দাবি,কোনও ভারতীয় নাগরিক এনআরসির তালিকা থেকে বাদ যাবে না বলে তাঁকে আশ্বাস দিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।মুখ্যমন্ত্রী জানান,সীমান্তবর্তী এলাকা হওয়ায় রাজ্যের নিরাপত্তা আরও সুরক্ষিত করার আশ্বাস দিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী৷

এবার ভুবনেশ্বরে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর মুখোমুখি হয়ে দেশের সাম্প্রতিক পরিস্থিতি, দিল্লির অশান্তি ইত্যাদি বিষয় নিয়ে সেখানে মমতা কিছু বলেন কি না, তা নিয়ে কৌতূহল রয়েছে রাজনৈতিক শিবিরে।