স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন বলিউডের মেগাস্টার অমিতাভ বচ্চন। রেহাই পাননি বিগ-বির পুত্রও। এবার সেই প্রসঙ্গেই বিতর্কিত মন্তব্য করে বসলেন রাজ্য বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষ। তিনি বললেন, “অনেক সেলিব্রিটিই একসময় করোনা নিয়ে এসেছেন।”

রবিবার প্রাতঃভ্রমনে বেড়িয়ে দিলীপ ঘোষ বলেন, “অনেক সেলিব্রিটিই করোনা নিয়ে এসেছেন, আর এখন একটা সার্কেলে ঢুকে যাচ্ছেন।” তবে সেইসঙ্গে তিনি বলেন, “অমিতাভ বচ্চন বয়স্ক মানুষ। তাঁর সুস্থতা কামনা করি।”

প্রসঙ্গত, শনিবার রাতে অমিতাভ বচ্চন টুইট করে জানান, তিনি করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। টুইটে তিনি লেখেন, “আমার করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট পজিটিভ। হাসপাতালে ভর্তি হয়েছি। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, আমার পরিবার ও কর্মীদের সকলেরই কোভিড টেস্ট করা হচ্ছে। অনুরোধ করব, গত দশ দিনে আমার খুব কাছাকাছি যাঁরা এসেছেন তাঁরা প্রত্যেকেই নিজেদের কোভিড টেস্ট করান।” অমিতাভকে ভর্তি করা হয়েছে নানাবতী হাসপাতালে।

অমিতাভের টুইটের এক ঘণ্টা পরেই অভিষেক বচ্চনও টুইট করে জানান তাঁর করোনা পরীক্ষার রিপোর্টও পজিটিভ এসেছে। যদিও অভিনেতা জানান, তিনি ও তাঁর বাবা দু’জনেরই সংক্রমণ মৃদু। তাঁদের শারীরিক অবস্থাও স্থিতিশীল। অমিতাভের করোনা আক্রান্ত হওয়ার খবরের পর তাঁর আরোগ্য কামনা করেন কোটি কোটি ভক্ত। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী থেকে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আরোগ্য কামনা করেন অমিতাভের।

এদিকে, রবিবার সকালে জানা গিয়েছিল ঐশ্বর্য, জয়া এবং আরাধ্যা– এই তিন জনেরই করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে। কিন্তু মহারাষ্ট্রের স্বাস্থ্যমন্ত্রী রাজেশ তোপে রবিবার দুপুরে হঠাৎ টুইট করে জানান, অমিতাভ বচ্চনের পুত্রবধূ ও নাতনিরও পজিটিভ রিপোর্ট এসেছে। তবে জয়া বচ্চনের নেগেটিভ রিপোর্ট এসেছে।

কিন্তু এর কিছুক্ষণ পরেই সেই টুইট ডিলিট করে দেন মহারাষ্ট্রের স্বাস্থ্যমন্ত্রী। তারপরই তৈরি হয়েছে ধোঁয়াশা।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ