মালদহ: মালদহে চায়ে পে চর্চায় খোশমেজাজে দিলীপ ঘোষ। সাতসকালে চায়ের আড্ডায় যোগ বিজেপির রাজ্য সভাপতির। দলীয কর্মী-সমর্থকদের সঙ্গে নিয়ে হেঁটে ঘুরলেন মঙ্গলবাড়ি এলাকা। স্থানীয়দের অভাব-অভিযোগও শুনলেন দিলীপ।

একদিকে যখন বিজেপি বিরোধী দলগুলি নাগরিকত্ব আইন ইস্য়ুতে কেন্দ্র বিরোধিতায় সোচ্চার, উলটোদিকে বিজেপিও সিএএ-র সমর্থনে সভা-মিছিল করছে দেশজুড়ে৷ সেই কর্মসূচিরই অঙ্গ হিসেবে মালদহে দিলীপ ঘোষ৷ সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের সমর্থনে অভিনন্দন যাত্রায় সামিল হচ্ছেন বিজেপি রাজ্য় সভাপতি৷

গত কয়েকদিন ধরেই উত্তরবঙ্গে রয়েছেন মেদিনীপুরের বিজেপি সাংসদ দিলীপ ঘোষ। উত্তরবঙ্গের জেলাগুলিতে একাধিক অভিনন্দন যাত্রায় যোগ দিচ্ছেন বিজেপি রাজ্য় সভাপতি। কর্মসূচিতে যোগ দেওয়ার আগেই নিয়মিত প্রাতঃভ্রমণে বের হচ্ছেন তিনি। হাঁটতে হাটতেই মিশে যাচ্ছেন সাধারণের ভিড়ে। কথা বলছেন স্থানীয়দের সঙ্গে।
সোমবার সকালে পুরাতন মালদহের মঙ্গলবাড়ি এলাকায় যান দিলীপ ঘোষ৷ সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন নিয়ে সাধারণ মানুষের সঙ্গে কথা বলেন তিনি। সিএএ-র কার্যকারিতা নিয়ে মানুষকে সচেতন করার কাজ করেন দিলীপ ঘোষ। একইসঙ্গে এলাকার বিশিষ্টদের সঙ্গেও কথা হয় দিলীপ ঘোষের।

আরও পড়ুন – বাজেটে সম্পত্তি বা বাড়ি বিক্রির আয়ের উপর কর উঠে যেতে পারে

সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের সমর্থনে সওয়াল করতে গিয়ে এদিন দিলীপ ঘোষ বলেন, ‘উত্তরবঙ্গে বিজেপির সংগঠন মজবুত। আগামী বিধানসভা ভোটেও ভালো ফল করবে বিজেপি। উত্তরবঙ্গের ৫৪টি আসনের মধ্যে ৫০টিতেই জিতবে বিজেপি। দলকে আরও চাঙ্গা করতে কাজ করে চলেছি। অভিনন্দন যাত্রায় প্রতিদিনই ভিড় বাড়ছে।’

সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন ও এনআরসি নিয়ে কেন্দ্র বিরোধিতায় সোচ্চার বিজেপি বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলি৷ কংগ্রেস, তৃণমূল, বাম-সহ একাধিক বিজেপি বিরোধী দল সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন বাতিলের দাবিতে সরব৷ ইতিমধ্যেই দেশের মধ্যে প্রথম রাজ্য হিসেবে সিএএ-র বৈধতাকে চ্যালেঞ্জ করে সুপ্রিম কোর্টে মামলা করেছে বাম-শাসিত কেরল। একইভাবে কেরল বিধানসভাতেও পাশ হয়েছে সিএএ বিরোধী প্রস্তাব। একই প্রস্তাব পাশ করিয়েছে পঞ্জাবের ক্যাপ্টেন অমরিন্দর সিংয়ের সরকার। দিন কয়েক আগে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন বিরোধী প্রস্তাব পাশ করেছে রাজস্থানের অশোক গেহলতের সরকার। পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভাতেও সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন বিরোধী প্রস্তাব পাশ করানো হবে বলে জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।