তিমিরকান্তি পতি, বাঁকুড়া: জুনিয়র চিকিৎসকদের কর্মবিরতি নিয়ে মুখ খুললেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি তথা সাংসদ দিলীপ ঘোষ। শুক্রবার বাঁকুড়া শহরে দলের তরফে একটি হোটেলের সদ্য নির্বাচিত সাংসদ দিলীপ ঘোষ ও সুভাষ সরকারের সম্বর্ধনা সভার আয়োজন করা হয়।

সেই অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়ার আগে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে দিলীপ ঘোষ বলেন, ‘‘যা চলছে ঠিক চলছে না, হাসপাতালটা ঝগড়া করার জায়গা না।’’ চিকিৎসকদের সুরক্ষার প্রয়োজন আছে বলে তিনি দাবি করেন৷ বলেন, মানুষের জীবনের সুরক্ষা আগে হওয়া উচিৎ। কারণ মানুষ চিকিৎসককে বিশ্বাস করে। একই সঙ্গে চিকিৎসকদের সুরক্ষার অভাব আছে বলে তিনি স্বীকার করেন৷ তারপর জুনিয়র চিকিৎসকদের কর্মবিরতি তুলে নেওয়ার আবেদন জানান তিনি।

এই প্রসঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে এক হাত নিয়ে বিজেপির রাজ্য সভাপতি বলেন, ‘‘মুখ্যমন্ত্রী চিকিৎসকদের সঙ্গে শ্রমিক ও গুণ্ডার মতো ব্যবহার করছেন। এটা ঠিক নয়। মুখ্যমন্ত্রীর চিকিৎসকরা সিপিএমও নয়, বিজেপিও নয়।’’

প্রসঙ্গত, এনআরত্রস কাণ্ডের জেরে মঙ্গলবার থেকে রাজ্যের অন্যান্য সরকারি হাসপাতালগুলির সঙ্গে বাঁকুড়া সম্মিলনী মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে চিকিৎসা পরিষেবা ব্যাহত ছিল। বুধবার আউটডোর পরিষেবা সম্পূর্ণ বন্ধ ছিল। জুনিয়র চিকিৎসকদের লাগাতার কর্মবিরতির মধ্যেই সিনিয়র চিকিৎসকদের ছুটি বাতিল করে আউটডোর পরিষেবা স্বাভাবিক রাখার চেষ্টা করল বাঁকুড়া সম্মিলনী মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই এই হাসপাতালে আউটডোর পরিষেবা চালু হয়েছে।