কলকাতাঃ  ডিজিটাল রেশন কার্ড পাওয়ার ক্ষেত্রে বিশেষ শিবির খোলা হয়েছিল। সেই বিশেষ শিবির বন্ধ হয়ে যাওয়ার পরেও ভর্তুকিহীন ডিজিটাল রেশন কার্ড করার জন্য আবেদন করা যাবে। এমনটাই জানানো হয়েছে খাদ্য দফতরের তরফে। শুধু তাই নয়, অনলাইনের মাধ্যমেও ডিজিটাল রেশন কার্ড তৈরি করার আবেদন করা যাবে। বিশেষ শিবির খোলা হলেও এখনও পর্যন্ত বহু মানুষ ডিজিটাল রেশন কার্ড করে উঠতে পারেনি বলে মনে করছে খাদ্য দফতর। সেই কারণেই শিবির বন্ধ হলেও ডিজিটাল রেশন কার্ড বানানোর ক্ষেত্রে সমস্ত সুযোগ খোলা রাখা হচ্ছে।

জানা যাচ্ছে, খাদ্য দফতরের স্থানীয় অফিসে গিয়েও ১০ নম্বর ফর্ম পূরণ করে ওই কার্ডের জন্য আবেদন করা যাবে। এমনিতে ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত রেশন কার্ডের বিশেষ শিবির চলার কথা ছিল। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে ওই সময়সীমা ১৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত বাড়ানো হয়। যা শেষ হচ্ছে আগামীকাল রবিবার। তবে সময়সীমা আরও বাড়ানোর জন্য এখনও পর্যন্ত নবান্ন থেকে কোনও নির্দেশ খাদ্য দফতর পায়নি। তবে শিবির না চললেও নতুন যে কোনও ধরনের ডিজিটাল কার্ডের জন্য খাদ্য দফতরের স্থানীয় অফিসে যথারীতি আবেদন করা যাবে বলে জানানো হয়েছে।

অন্যদিকে ভর্তুকিহীন কার্ডের জন্য অনলাইনে আবেদন করার যে ব্যবস্থা চালু করা হয়েছিল, তা থাকছে। অনলাইনে প্রায় ১৮ লক্ষ আবেদন জমা পড়েছে। বিশেষ শিবিরগুলিতে ভর্তুকিহীন কার্ডের জন্য কত আবেদন জমা পড়ল, তার চূড়ান্ত হিসেব জেলাগুলি থেকে এখনও পর্যন্ত খাদ্য দফতরে আসেনি। তবে সমস্ত হিসাব আসলে ওই কার্ডের সংখ্যা ৫০ লক্ষ ছাড়িয়ে যেতে পারে বলে করা হচ্ছে। ভর্তুকিতে খাদ্যসামগ্রী পাওয়ার ডিজিটাল রেশন কার্ড আছে, এমন অনেকে সেটি ছেড়ে ভর্তুকিহীন কার্ড নেওয়ার জন্য অনলাইন ও অফলাইনে আবেদন করেছেন। গরিব মানুষদের জন্য যে অন্ত্যোদয় রেশন কার্ড দেওয়া হয়, তা ছেড়ে দিয়ে ভর্তুকিহীন কার্ড নেওয়ার আবেদনও বেশ কিছু জমা পড়েছে। (তথ্য সূত্র- বর্তমান)

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ