মেদিনীপুরঃ রাজ্যে পালাবদলের পরেই রাজ্যের পর্যটন মানচিত্রকে বিশ্বের দরবারে পৌঁছে দিতে উদ্যোগ নেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। দিঘাকে গোয়া এবং দার্জিলিংকে সুইজারল্যান্ডের মতো গড়ে তোলার স্বপ্ন দেখেন। শুধু স্বপ্ন দেখাই নয়, দিঘা-দার্জিলিংকে সুন্দরভাবে গড়ে তুলতে একাধিকবার ছুটে গিয়েছেন এই সমস্ত জায়গায়। প্রশাসনিক আধিকারিকদের কাছ থেকে খোঁজখবর নিয়েছেন। কতটা কাজ হয়েছে, কি বাকি রয়েছে সমস্ত হালহকিকত জেনেছেন। শুধু পর্যটন ক্ষেত্রেই নয়, এবার দিঘাকে বিশ্বের দরবারে পৌঁছে দিতে চলেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

রাজ্যের একমাত্র সৈকত শহর দীঘায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের হাত ধরেই এবার অনুষ্ঠিত হতে চলেছে বিশ্ব বাণিজ্য সম্মেলন। জানা গিয়েছে চলতি মাস অর্থাৎ ডিসেম্বরে ১১,১২, তারিখে দীঘার কনভেনশন সেন্টারে আয়োজিত হতে চলেছে এই সম্মেলন। আর এই অনুষ্ঠানে দেশ বিদেশের বহু শিল্পপতিরা অংশ গ্রহণ করবেন। তাই দীঘা জুড়েই এখন সাজোসাজো রব। সৈকতধার থেকে রাস্তাঘাট পিকনিক স্পট, অমরাবতী পাক’, টয়ট্রেন, রেলওয়ে স্টেশন,মেরিন ড্রাইভ সব জায়গা গুলিকে নতুনভাবে মেরামত করে রঙিন করে তোলার কাজ চলছে। অনুষ্ঠানের কয়েকদিনের আগে থেকেই দীঘা এলাকা জুড়ে জোরালো নিরাপত্তা ব্যবস্থা হয়েছে। এছাড়াও সর্বত্র আলো, নজর বন্দি ক্যামেরা ওয়াচ টাওয়ার থেকে নজরদারির ব্যবস্থা করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, সৈকত শহরের পর্যটনকে কাজে লাগিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় চেয়েছিলেন পুঁজি টানতে৷ সেই লক্ষ্যেই পূর্ব মেদিনীপুরের দিঘায় ৭০ কোটি ২৬ লক্ষ টাকা খরচে গড়ে উঠেছে আন্তর্জাতিক মানের কনভেনশন সেন্টার৷

পাঁচ একর জমির ওপর দিঘায় আন্তর্জাতিক কনভেনশন সেন্টার নির্মাণের কাজ শেষ হয় চলতি বছরের অগস্ট মাসে। ২০১৭ সালের ১১ই জুলাই এই কনভেনশন সেন্টারের শিলান্যাস করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। আন্তর্জাতিক এই কনফারেন্স সেন্টারে এক হাজার বর্গমিটারের প্রদর্শনশালা, সেমিনার হল, ভিআইপি লাউঞ্জ ও এক হাজার আসন বিশিষ্ট অডিটোরিয়াম থাকছে। সেই সঙ্গে থাকছে চারতারার আতিথেয়তার হাতছানি। যেখানে সুইমিং পুল, স্পা ব্লক, চিলড্রেন্স পার্ক, জিম, ব্যাঙ্কোয়েট হলের পাশাপাশি থাকছে ককটেল স্পা ও লা জবাব রসনাতৃপ্তির রসদ।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ