মাদ্রিদ: উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সেমিফাইনালের আশা ছাড়তে পারছেন না দিয়েগো সিমিওনে। নিজেদের মাঠে রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে কোয়ার্টারফাইনালের প্রথম লেগে গোলশূন্য ড্র করে তাঁর দল। এই ফলের পরও চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সেমিফাইনালে ওঠার লড়াইটা এখনও রয়েছে বলেই মনে করছেন অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের কোচ।
ভিসেন্তে কালদেরনে রিয়ালের সঙ্গে ড্র ম্যাচ শেষে সাংবাদিক সম্মেলনে সিমিওনে বলেন, ‘এই ফলের পর লড়াইটা এখন ওপেন রইল৷’
প্রথমার্ধে রিয়াল মাদ্রিদ অসাধারণ ফুটবল খেলে। শুরু থেকেই অ্যাটলেটিকোর রক্ষণের ওপর প্রচণ্ড চাপ তৈরি করে কার্লোস অ্যানসেলোত্তির শিষ্যরা। নিজেদের নিয়ন্ত্রণে বল রেখে আক্রমণাত্মক ফুটবল খেলে সুযোগও তৈরি করে রিয়াল।
ম্যাচের ৩ মিনিটে বিপজ্জনক জায়গায় বল পেয়েও গোল করতে পারেননি গ্যারেথ বেল। ৩২ মিনিটেও ২৫ গজ দূর থেকে বুলেট গতির শট নিয়েও গোল পাননি তিনি। এর পাঁচ মিনিট পর জেমস রদ্রিগেজের ২২ গজ দূর থেকে নেওয়া বাঁ পায়ের জোরালো শটেও গোল হয়নি। ৪৩ মিনিটে গোল থেকে বঞ্চিত হন করিম বেঞ্জেমা।
এই চারবারই রিয়ালের মুখের গ্রাস কেড়ে নেন অ্যাটলেটিকোর স্লোভেনিয়ার গোলকিপার ইয়ান ওবলাক। অসাধারণ চারটি ‘সেভ’ করেন তিনি। ম্যাচ শেষে নিজের দলের গোলকিপারের প্রশংসায় পঞ্চমুখ সিমিওনে। তিনি বলেন, ‘প্রথমার্ধে ওরা আমাদের থেকে ভালো খেলেছে। ওবলাক অসাধারণ ছিল।তাই গোল করতে পারেনি৷’
প্রথমার্ধে রিয়াল মাদ্রিদ আরও দুটি সহজ গোলের সুযোগ নষ্ট করে। তবে দ্বিতীয়ার্ধে অ্যাটলেটিকো ঘুরে দাঁড়ায়। রিয়ালের আক্রমণাত্মক ফুটবলের জবাবে তারাও পাল্টা আক্রমণ করে। গোল না পেলেও ভালো কিছু সুযোগও তৈরি করে তারা। শিষ্যরা দ্বিতীয়ার্ধে এভাবে ঘুরে দাঁড়ানোয় খুব খুশি সিমিওনে। তিনি বলেন, ‘আমরা কঠিন এক প্রতিপক্ষের বিপক্ষে খেলেছি এবং দ্বিতীয়ার্ধে যেভাবে খেলা পরিবর্তন হয়ে গেল, তার প্রশংসা করতেই হচ্ছে৷’