হ্যামিলটন: টি-২০ ক্রিকেটের ইতিহাসে প্রথমবার সুপার ওভারে অবতীর্ণ হল ভারতীয় দল। রোহিত শর্মার ধামাকেদার ব্যাটিংয়ে থ্রিলার ম্যাচ জিতে প্রথম সুপার ওভার স্মরণীয় করে রাখল ভারতীয় দল। স্বাভাবিকভাবেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সুপার ওভারে ব্যাট করার অভিজ্ঞতা এই প্রথম রোহিত শর্মার। দিনান্তে জোড়া ছক্কা হাঁকিয়ে ম্যাচ জয়ের নায়ক হলে কী হবে, সুপার ওভারের শুরুতে দোটানায় ছিলেন রোহিত, ম্যাচ জিতিয়ে সাফ জানালেন ডেপুটি রোহিত শর্মা।

কেবল সুপার ওভারই নয়, নির্ধারিত ২০ ওভারেও এদিন ব্যাট হাতে ভারতের সবচেয়ে সফল ব্যাটসম্যান রোহিতই। তাঁর ৪০ বলে ৬৫ রানের বিস্ফোরক ইনিংসকে প্ল্যাটফর্ম করেই কিউয়িদের এদিন ১৮০ রানের লক্ষ্যমাত্রা ছুঁড়ে দিয়েছিল ভারত। এরপর কেন উইলিয়ামসনের ৯৫ রানে ভারত একসময় ম্যাচ থেকে প্রায় হারিয়ে গেলেও অন্তিম ওভারে বল হাতে ভেল্কি মহম্মদ শামির। প্রয়োজন ছিল ৯ রান। কিন্তু ২০তম ওভারে ৮ রানের বেশি খরচ করেননি শামি। পাশাপাশি জোড়া উইকেটে খাদের কিনারা থেকে তুলে দলের জয়ের মঞ্চ প্রস্তুত করে দেন বঙ্গ পেসার।

এরপর সুপার ওভারে ১৮ রান খরচ করে ফের দলকে ব্যাকফুটে ঠেলে দেন জসপ্রীত বুমরাহ। ঐতিহাসিক সিরিজ জয়ের লক্ষ্যে রান তাড়া করতে নেমে শেষ ২ বলে ভারতের প্রয়োজন ছিল ১০ রান। অন-স্ট্রাইক রোহিতের ঝোড়ো ব্যাটে শেষমেষ ম্যাচ জয়ের পাশাপাশি সিরিজ জিতে নেয় ‘মেন ইন ব্লু’। আর দলকে জিতিয়ে প্রথমবার সুপার ওভারে ব্যাটিংয়ের প্রসঙ্গে রোহিত জানান, ‘এর আগে কখনও সুপার ওভারে ব্যাট করিনি। বুঝতে পারছিলাম না কী করা উচিৎ। প্রথম বল থেকেই আক্রমণের রাস্তায় যাওয়া উচিৎ নাকি সিঙ্গল নিয়ে দেখা উচিৎ।’

এই ম্যাচ জিতলেই প্রথমবার নিউজিল্যান্ডের মাটিতে টি-২০ সিরিজ জয় নিশ্চিত। তাই গুরুত্বের বিচারে এই ম্যাচ ভারতের কাছে ছিল অপরসীম। পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে ম্যাচের সেই গুরুত্বের কথাও তুলে ধরেন ভারতীয় দলের ডেপুটি। রোহিত জানান, ‘আমাদের পারফরম্যান্স দুর্দান্ত। তবে যেভাবে আমিই আউট হয়েছি সেটা মেনে নেওয়া যায় না। আমি আরও সময় ক্রিজে কাটাতে চেয়েছিলাম। আমরা জানতাম এই ম্যাচটা জিতলেই আমাদের সিরিজ জয় নিশ্চিত। এমন গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে দলের কিছু গুরুত্বপূর্ণ সদস্যের আজ খোলস ছেড়ে বেরনোটা আবশ্যক ছিল।’

উল্লেখ্য, প্রথম তিন ম্যাচ জিতে ভারতীয় দল সিরিজ মুঠোয় নিয়ে নেওয়ায় শেষ ২টি ম্যাচ কার্যত নিয়মরক্ষার হয়ে দাঁড়াল। ৩১ জানুয়ারি সিরিজের চতুর্থ টি২০ ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে ওয়েলিংটনে।