ফাইল ছবি

স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: এক্সপ্রেস ট্রেনে আগুন৷ আতঙ্কে ট্রেন থেকে যাত্রীদের ঝাঁপ৷ মৃত দুই৷ ঘটনাস্থল শিলিগুড়ির কাছে চটেরহাট৷ দমকল গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে৷ ঘটনাস্থলে যায় পুলিশ ও রেলের উচ্চপদস্থ আধিকারিকরা৷

শুক্রবার সকালে চণ্ডীগড় থেকে অসমের ডিব্রুগড়ের দিকে যাচ্ছিল চণ্ডীগড়-ডিব্রুগড় এক্সপ্রেস৷ শিলিগুড়ির ফাঁসিদেওয়া চটহাট স্টেশনের কাছে ওই ট্রেনের ইঞ্জিন ও একটি কামরা থেকে ধোঁয়া বেরতে থাকে৷ বিপদ বুঝে ট্রেনের চালক ২৭ নম্বর রেলসেতুর কাছে ট্রেনটিকে দাঁড় করিয়ে দেন৷

তার আগেই ধোঁয়া দেখে আতঙ্কে চলন্ত ট্রেন থেকে ঝাঁপ দিয়ে বাঁচার চেষ্টা করেন যাত্রীরা৷ তাদের মধ্যে বেশ কয়েকজন গুরুতর আগত হন৷ আহতদের হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে দুইজন যাত্রীকে মৃত বলে জানান হয়৷ দু’জনের নাম পরিচয় এখনও জানা যায়নি৷

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় দমকলের চারটি ইঞ্জিন। পুলিশবাহিনী ও রেলের আধিকারিকরাও পৌঁছয় ঘটনাস্থলে৷ এছাড়া দুর্ঘটনাগ্রস্ত ট্রেনের কাছে নিয়ে আসা হয় অ্যাম্বুল্যান্সও৷ দুর্ঘটনাগ্রস্ত ট্রেনের ইঞ্জিন ও কামড়ার আগুন দমকল কর্মীদের চেষ্টায় বেশ কিছুক্ষন পরে নিয়ন্ত্রণে আসে৷ তবে কীভাবে ট্রেনে আগুন লাগল, তা এখনও স্পষ্ট নয়। আগুন লাগার কারণ খতিয়ে দেখছে তদন্তকারী আধিকারিকরা।

প্রশ্ন অনেক-এর বিশেষ পর্ব 'দশভূজা'য় মুখোমুখি ঝুলন গোস্বামী।