মুম্বই: ১৮ ডিসেম্বর রাজভবনে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে বলিউডের একটি বৈঠক আয়োজিত হয়েছিল৷ বলিউডের তারকা এবং প্রযোজকরা হাজির হয়েছিলেন সেখানে৷ ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির আগামী দিনের কিছু সিদ্ধান্ত এবং আলোচনা নিয়ে বসেছিল এই বৈঠক৷

সেই বৈঠকের কিছু ছবি সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে প্রকাশ্যে আসতেই শুরু হয়েছে তর্ক-বিতর্ক৷ বলিউডে অগুন্তি মহিলা প্রযোজক এবং অভিনেত্রী থাকতেও অদ্ভুতভাবে বৈঠকটিতে কোনও মহিলা উপস্থিত ছিলেন না৷ কেন ছিলেন না, তার সদোত্তরও নেই কারও কাছে৷

বলিউডের অভিনেত্রী দিয়া মিরজা জনসমক্ষে প্রশ্ন করে বসলেন অক্ষয় কুমারকে৷ ভাইরাল হওয়া ছবিতে দেখা গিয়েছে বৈঠকে উপস্থিত রয়েছেন, প্রযোজক রীতেশ সিধওয়ানি, করণ জোহার, রাকেশ রোশন, রনি স্ক্রিউওয়ালা, Central Board of Film Certification (CBFC)-র চেয়ারম্যান প্রসূন যোশী৷

এছাডা়ও ছিলেন Film Producers Guild এর প্রেসিডেন্ট সিদ্ধার্থ রায় কাপুর, অজয় দেবগণ এবং অক্ষয় কুমার৷ অক্ষয় কুমারের আপলোড করা ছবিতেই দিয়া লিখেছেন, কেন এই বৈঠকে কোনও অভিনেত্রী এবং মহিলা প্রযোজক হাজির ছিলেন না৷

দিয়া এই প্রশ্ন তোলায় তাঁর সমর্থনে এগিয়ে এসেছেন অসংখ্য নেটিজেন৷ তাদের প্রশ্ন, ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির সবটাই কী কেবল পুরুষদের জুড়ে৷ একতা কাপুর, রিয়া কাপুর, কিরণ রাও গৌরি খানের মতো প্রযোজকদের ছাডা় কীকরে এই মিটিং সম্ভব হল৷

তাদের আরও দাবি, অন্তত একজন অভিজ্ঞ অভিনেত্রীকে এই মিটিংয়ে আমন্ত্রণ করা উচিত ছিল৷ দিয়া আরও লিখেছেন, আজেকর দিনেও মহিলাদের সেই গুরুত্ব এবং প্রাধান্য দেওয়া হয় না যতটা পুরুষদের দেওয়া হয়ে থাকে৷

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

জীবে প্রেম কি আদৌ থাকছে? কথা বলবেন বন্যপ্রাণ বিশেষজ্ঞ অর্ক সরকার I।