Consider Me as retired…

কথাগুলো লিখতে গিয়ে কি একটুও বিচলিত হননি ভারতের ঠাণ্ডা মাথার ক্যাপ্টেন? জানা নেই। তবে স্বাধীনতা দিবসের সন্ধেয় বুকে কেঁপেছে ভারতবাসীর।

কেউ কেউ হয়ত ধরে নিয়েছিলেন, অবসরের সময় হয়ে এসেছে। তবুও তিনি তো মাহি। ভারতবাসীর আবেগের নাম। হয়ত এখনও ব্যাট হাতে মাঠে নামবেন তিনি। কিন্তু আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের মাঠে ‘মাহি’ ‘মাহি’ ধ্বনি মিস করবে ক্রিকেটপ্রেমী ভারতবাসী।

তাই তো তাঁর ইনস্টাগ্রামের পোস্টের কমেন্ট বক্সে লেখা ফুটে উঠছে, ‘দিলোঁ সে ক্যায়সে রিটায়ার হোগা ভাই?’ কমেন্ট বক্স ছেয়ে যাচ্ছে ‘হৃদয়-ভাঙা’ ইমোজিতে।

সকালে প্রধানমন্ত্রীর ভাষণ দিয়ে দিন শুরু। তারপরই দিন জুড়ে খবরের শিরোনামে তারই চর্বিত চর্বন। কিন্তু সন্ধেয় এমন একটা খবর অপেক্ষা করে আছে, তা ছিল আশাতীত।

ইনস্টাগ্রামে খুব একটা পোস্ট করেন না তিনি। ফেব্রুয়ারিতে তাঁর হ্যান্ডেলের শেষ পোস্ট। আচমকা বড় খবরটা সেই ইনস্টাতেই দিলেন তিনি। লিখলেন, ‘এতদিন ধরে আপনাদের ভালোবাসা আর সমর্থনের জন্য ধন্যবাদ। ১৯:২৯ (সন্ধে ৭ টা ২৯ মিনিট) থেকে ধরে নিন আমি রিটায়ার্ড।’

সঙ্গে একটি ভিডিও পোস্ট করেছেন তিনি। তাঁর কেরিয়ারের বেশ কিছু মুহূর্তের ছবি রয়েছে সেখানে। সচিন তেন্ডুলকরের সঙ্গে গলা মিলিয়ে ধোনি, সুরেশ রায়নার সঙ্গে ধোনি, যুবরাজকে বুকে জড়িয়ে ধোনি, বিশ্বকাপ জয়ের পর উল্লাসে ধোনি। সেসব ছবি মন ভালো করা নাকি মন খারাপ করা, তা বলা মুস্কিল। তবে, ক্রিকেটের ইতিহাসে স্মরণীয় হয়ে থাকবে সেসব ছবি।

ঘণ্টা দুয়েক পেরিয়ে গিয়েছে ধোনির অবসরের। তাঁর সেই পোস্টের ভিউ ৭৬ লক্ষ পার। ৪ লক্ষ কমেন্টের বেশির ভাগ জুড়ে হৃদয় ভাঙার প্রতিক্রিয়া। তাই ভারতবাসীর মন থেকে অবসর নেওয়া কঠিন ক্যাপ্টেন কুলের।

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও