মুম্বই: দু’মাসের ছুটিতে আর্মি ক্যাম্পে যোগ দিতে যাওয়া মহেন্দ্র সিং ধোনি ফিরে এসে জাতীয় দলে জায়গা পাবেন কী না, তা নির্ভর করছে নির্বাচকদের উপর৷ বোর্ডের তরফে স্পষ্ট জানিয়ে দেওয়া হয়েছে যে, ধোনি এখনই অবসর নিচ্ছেন না৷

ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের দল ঘোষণার পর নির্বাচক প্রধান এমএসকে প্রসাদ জানিয়েছেন যে, অবসরের সিদ্ধান্ত নিতান্ত ব্যক্তিগত বিষয় এবং ধোনির মতো কিংবদন্তি জানে কখন খেলা ছাড়তে হয়৷ আপাতত পরবর্তী সিরিজের জন্য ধোনির নাম নির্বাচকদের বিবেচনায় থাকবে বলে জানালেও এটা নিশ্চিত যে, ধোনির চাইলেই আবার টিম ইন্ডিয়ার জার্সিতে মাঠে নেমে পড়তে পারবেন না৷ নির্বাচকরা যদি ভবিষ্যতের কথা ভেবে সামনের দিকে তাকাতে চায়, তবে ধোনির আন্তর্জাতিক কেরিয়ার এখানেই শেষ হয়ে যেতে পারে৷

আরও পড়ুন: তিন ফর্ম্যাটেই নির্বাচক প্রধানের প্রথম পছন্দের উইকেটকিপার পন্ত

অর্থাৎ অবসরের সিদ্ধান্ত নিতান্ত ব্যক্তিগত বিষয় হলেও ধোনির ক্ষেত্রে তাঁর অবসরের প্রসঙ্গ রয়েছে নির্বাচকদের কোর্টে৷ এর সঙ্গত কারণও রয়েছে৷ বোর্ড সূত্রের খবর ধোনি নির্বাচকদের পরিস্কার জানিয়ে দিয়েছেন যে, নির্বাচকরা চাইলে তাঁর নাম বিবেচনা করতে পারে পরবর্তী সময়ে৷ না চাইলেও তাঁর এ বিষয়ে কোনও বক্তব্য নেই৷

ইতিমধ্যেই টেস্ট ক্রিকেট থেকে অবসর নেওয়া ধোনি ঘরোয়া ক্রিকেট খেলেন না৷ সুতরাং দু’মাস পরে ফিরে এলেও তাঁর ম্যাচ ফিটনেস যাচাইয়ের কোনও সুযোগ নেই৷ সুতরাং গোটা বিষয়টাই নির্বাচকদের হাতে ছেড়ে দেওয়া ছাড়া উপায় ছিল না ধোনির৷ বর্তমান নির্বাচক কমিটির মেয়াদ যদি বাড়িয়ে দেওয়া হয়, সেক্ষেত্রে ধোনি আরও একটা সুযোগ পেয়ে যেতে পারেন৷ নতুবা বোর্ড তাঁক ফেয়ারওয়েল ম্যাচ খেলার প্রস্তাব দিতে পারে আসন্ন ঘরোয়া মরশুমেই৷

আরও পড়ুন: ধোনির মতো কিংবদন্তি জানে কখন অবসর নিতে হয়: প্রসাদ

দীনেশ কার্কিতকে ওয়ান ডে দল থেকে ছেঁটে ফেলে নির্বাচকরা স্পষ্ট বার্তা দিয়েছেন যে, তাঁর আন্তর্জাতিক কেরিয়ার কার্যত শেষ৷ পার্থিব প্যাটেলের নামও আর বিবেচনায় আসবে বলে মনে হয় না৷ এই অবস্থায় ঋদ্ধিমান সাহাকে টেস্টে ফেরানো হয়েছে যেহেতু তিনি চোট পাওয়ার আগে টেস্ট দলের নিয়মিত সদস্য ছিলেন৷ ঋদ্ধি প্রসঙ্গে এমএসকে প্রসাদ বলেন, ‘আমাদের একটা অলিখিত নিয়ম রয়েছে৷ প্রতিষ্ঠিত ক্রিকেটার চোটের জন্য ছিটকে গেলে চোট সারিয়ে ফিরে আসার পর তাঁকে আরও একটা সুযোগ দেওয়া উচিত বলেই আমাদের মনে হয়৷ সেই মতোই ঋদ্ধিকে টেস্ট দলে ফেরানো হয়েছে৷’

ঋদ্ধিমান কাম ব্যাক করলেও প্রসাদ স্পষ্ট ইঙ্গিত দিয়েছেন যে, ঋষভ পন্তই হতে চলেছেন তিন ফর্ম্যাটে টিম ইন্ডিয়ার প্রথম পছন্দের উইকেটকিপার৷