মেলবোর্ন: ওয়ানডে ক্রিকেটে আইসিসি’র নতুন ফিল্ডিং বিধি নিয়ে প্রথম থেকেই সোচ্চার ছিলেন টিম ইন্ডিয়া অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি। বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে অস্ট্রেলিয়ার কাছে হারার পরই এই নিয়মের ফের একবার পরিবর্তন চাইলেন মাহি।ত্রিশ-গজের বাইরে চার ফিল্ডার রাখার নিয়ম ব্যাটসম্যানদের খুব বেশি করে সুবিধা দেয়, এই যুক্তি খাড়া করে সেই নিয়মের বদল চাইলেন ক্যাপ্টেল কুল৷

উল্লেখ্য, বৃহস্প্রতিবার সিডনির সেমিফাইনালে একজন সিমার অলরাউন্ডারের অভাব ভারত অনুভব করেছে। দলের পঞ্চম বোলার হিসেবে বাঁ-হাতি রবীন্দর জাদেজা অজিদের রানের গতিতে নিয়ন্ত্রণে আনতে পারেননি।

ধোনি স্পষ্ট করে জানিয়েছেন, নতুন ফিল্ডিং নিয়মে ভারতের বোলিংয়ের ক্ষেত্রে প্রতিকূল হয়ে দাঁড়াচ্ছে। কেননা, ওই নিয়ম অনুসারে ত্রিশ গজ বৃত্তের বাইরে চারজনের বেশি ফিল্ডার রাখা যাবে না। এই ব্যাপারে ধোনি বলেছেন, ‘আমার মতে, ওই নিয়মের বদল হওয়া প্রয়োজন। ক্রিকেটের ইতিহাস ঘাঁটলে দেখা যাবে, একদিনের খেলায় আমরা এর আগে ডাবল সেঞ্চুরি দেখিনি। কিন্তু গত তিন বছরে বেশ কয়েকটি ডাবল সেঞ্চুরি হয়েছে৷

এই জন্যই ধোনি আইসিসি’র নয়া ফিল্ডিং নিয়মের দিকেই আঙুল তুলেছেন। তিনি বলেছেন, এই নিয়মে ব্যাটসম্যানরা অত্যধিক সুবিধা পাচ্ছেন। বৃত্তের মধ্যে বেশি ফিল্ডার থাকলে ডট বল বেশি হচ্ছে বলে ওই নিয়মের পক্ষে সওয়াল করে যে যুক্তি দেওয়া হচ্ছে, তাকেও একহাত নিয়েছেন ধোনি।

 

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনা পরিস্থিতির জন্য থিয়েটার জগতের অবস্থা কঠিন। আগামীর জন্য পরিকল্পনাটাই বা কী? জানাবেন মাসুম রেজা ও তূর্ণা দাশ।