লিডস: ৩৯-এ পা দিলেন ভারতের বিশ্বজয়ী অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি। শনিবার শ্রীলঙ্কাকে হেলায় হারিয়ে গ্রুপ শীর্ষে থেকেই সেমিফাইনাল খেলতে নামছে টিম ইন্ডিয়া। স্বাভাবিকভাবেই ধোনির জন্মদিনের আনন্দ কয়েকগুণ বেড়ে গেল ভারতের ম্যাচ জয়ে।

স্ত্রী সাক্ষীর তদারকিতে ম্যাচ জয়ের পর লিডসের হোটেলে প্রস্তুত রাখা ছিল কেক। উপস্থিত ছিলেন বন্ধু-বান্ধবরাও। সেখানেই মেয়ে জিভার সঙ্গে কোমর দোলালেন ধোনি। পার্টিতে হাজির দলের সতীর্থ হার্দিক পান্ডিয়া কেদার যাদব ও ঋষভ পন্ত। চুটিয়ে চলল ফটোসেশনের পালা। পান্ডিয়ার সঙ্গে খালি হাতে হেলিকপ্টার শটের স্টান্ট দেখালেন মাহি। জিভা-সাক্ষী সঙ্গে হার্দিক-কেদার, এক ফ্রেমে ধরা দিলেন বিশ্বজয়ী অধিনায়ক। টিমের সঙ্গে জন্মদিন সেলিব্রেশনের আগে ঘরোয়া পার্টিতে মাহির কেক-মাখা মুখের ছবি ভাইরাল হল ইন্টারনেটে।

আরও পড়ুন: ৩৮তম জন্মদিনে আইসিসি’র ধোনি-বন্দনা

শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে রান তাড়া করতে এদিন ব্যাট হাতে নামতে হয়নি ধোনিকে। নিন্দুকদের মুখে কুলুপ সেঁটে ব্যাট হাতে ধোনির ঝলক থেকে অনুরাগীরা এদিন বঞ্চিত হলেও মেয়ে জিভার সঙ্গে মাহির ডান্স স্টেপের ক্লিপিং ক্ষণিকের মধ্যে ভাইরাল ইন্টারনেটে। মেয়ে জিভার অফিসিয়াল ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে সেই ভিডিও পোস্ট হতেই তা রীতিমতো ভাইরাল। সোশ্যাল মিডিয়ায় শুভেচ্ছার বন্যায় ভাসতে থাকেন প্রাক্তন অধিনায়ক। পাশাপাশি কেক কাটার মুহূর্তের ভিডিও ও মেয়েকে কোলে নিয়ে মাহির কেক-মাখা মুখের ছবি তাঁর ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে পোস্ট করেন সাক্ষী।

আরও পড়ুন: সচিনের সর্বকালীন রেকর্ড ছুঁলেন রোহিত শর্মা

মাহির জন্মদিনের ঘরোয়া পার্টিতে এদিন হাজির ছিলেন বন্ধু-বান্ধবরাও। তবে পার্টির উত্তেজনা কয়েকগুণ বাড়িয়ে দেন সতীর্থ হার্দিক পান্ডিয়া। ধোনির সঙ্গে খালি হাতে হেলিকপ্টার শট নকল করে সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিও পোস্ট করেন জাতীয় দলের এই অল-রাউন্ডার। ক্যাপশন হিসেবে লেখেন, ‘শুভ জন্মদিন মাহি ভাই। প্রত্যেকটা দিন তোমার সঙ্গে কাটানো মানে নতুন কিছু শেখা এবং বেড়ে ওঠা। জীবনের সবচেয়ে বড় রোল মডেল হয়ে থাকার জন্য ধন্যবাদ।’

পার্টিতে উপস্থিত জাতীয় দলের আরেক সতীর্থ কেদার যাদবও জিভাকে কোলে নিয়ে সস্ত্রীক ধোনির সঙ্গে একটি সুন্দর মুহূর্তের ছবি পোস্ট করেন। এর আগে এদিন ম্যাচ জয়ের পর সাংবাদিক সম্মেলনে ধোনির জন্মদিনের প্ল্যানিং নিয়ে ম্যাচের সেরা রোহিত শর্মাকে জিজ্ঞেস করা হলে মজার রিপ্লাই দেন রোহিত। ভারতীয় ওপেনার জানান, ‘জানিনা আমরা ম্যাঞ্চেস্টার যাচ্ছি না বার্মিংহ্যাম। তবে বাসে যাওয়ার পথে কেক কাটা হবে। সেই ছবি আপনাদের পাঠিয়ে দেব।’ রোহিতের রিপ্লাই শুনে হাসিতে ফেটে পড়ে মিডিয়ারুম।