মুম্বই: ভারতের ৭৩তম স্বাধীনতা দিবসেই শেষ হয়েছে মহেন্দ্র সিং ধোনির দেশরক্ষার কাজ৷ শনিবার লেহ থেকে নয়াদিল্লির বিমান ধরেন ভারতীয় টেরিটোরিয়াল আর্মির লেফটেন্যান্ট কর্নেল ধোনি৷ সেখান থেকে প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক মুম্বই পাড়ি দিয়েছে বিজ্ঞাপনের শুটিংয়ের কাজে৷

বিরাট কোহলিরা যখন ওয়েস্ট ইন্ডিজের মাটিতে ওয়ার্ল্ড টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের জন্য তৈরি হচ্ছে, তখন মুম্বইয়ে বিজ্ঞাপনের শুটিংয়ে ব্যস্ত মাহি৷ জানা গিয়েছে, মুম্বইয়ের গ্রিন ভ্যালি স্টুডিওতে বিজ্ঞাপনের শুটিং করছেন তিনি। মঙ্গলবার হেয়ার স্টাইলিস্ট স্বপ্না ভাওয়ানির কাছে হেয়ার কাটিং সারেন ধোনি৷ তারপর মেহবুব স্টুডিওতে বিজ্ঞাপনের শুটিং করেন বিশ্বকাপ জয়ী ভারত অধিনায়ক।

সেনাবাহিনীর সঙ্গে ১৫ দিন দেশরক্ষায় নিয়োজিত থাকার পর চুলের নতুন ছাঁটও দিয়েছেন মাহি। হেয়ারস্টাইলিস্ট স্বপ্না ভাওয়ানি নিজের টুইটারে হ্যান্ডেলে ধোনির চুল ছাঁটাইয়ের ভিডিও পোস্ট করেছেন। ক্যাপশন হিসেবে লেখেন, ‘নতুন লুকে ক্যাপ্টেনহট। ধোনি ক্যাপ্টেনসাব।’‌

টেরিটোরিয়াল আর্মির সঙ্গে ধোনির সীমান্তরক্ষার কাজে বেঁধে দেওয়া দিন পনেরোর মেয়াদ শেষ হয়েছে বৃহস্পতিবারই। বিশ্বকাপের পর সেনার কাছে সীমান্তরক্ষী হিসেবে দেশসেবা করতে চেয়ে ইচ্ছেপ্রকাশ করেছিলেন ধোনি। ধোনির ইচ্ছেকে যথাযোগ্য সম্মান জানিয়ে প্রাক্তন অধিনায়ককে টেরিটোরিয়াল আর্মির ১০৬ টিএ প্যারা ব্যাটেলিয়ন হিসেবে জম্মু-কাশ্মীরে প্রশিক্ষণের বন্দোবস্ত করে দেয় ভারতীয় সেনাবাহিনী।

১০৬ নম্বর টেরিটোরিয়াল আর্মি ব্যাটেলিয়নের সঙ্গে স্বাধীনতা দিবস সেলিব্রেশন করেন বিশ্বকাপ জয়ী ভারত অধিনায়ক। পতাকা তুলে স্বাধীনতা দিবস সেলিব্রশনের আগে লাদাখের আর্মি হাসপাতালে যান ধোনি। সেখানে ভর্তি জওয়ান ও তাঁদের পরিবারের সঙ্গে দেখা করেন তিনি। ৩১ জুলাই টেরিটরিয়াল আর্মির একজন সক্রিয় সদস্য হিসেবে প্রশিক্ষণে যোগদান করেছিলেন মাহি। যোগ দিয়েই সেনা পোশাকে ব্যাটে অটোগ্রাফ দিতে দেখা গিয়েছিল কর্নেল (সাম্মানিক) ধোনিকে। পাশাপাশি সেনার পোশাকে ভলিবল খেলে ইউনিটের বাকি সদস্যদের উদ্দীপ্ত করেছিলেন মাহি।