নয়াদিল্লি: বিশ্বকাপের মাঝপথেই বাম হাতের বুড়ো আঙুলে চোট পেয়ে ফিরেছিলেন দেশে। প্রায় একমাস পর আঙুলের চোট সারিয়ে নেটে ব্যাট ধরলেন শিখর ধাওয়ান। শুধুমাত্র নেটে ফেরাই নয়, নেটে ফিরে দিনকয়েক আগে প্রাক্তন সতীর্থ যুবরাজের ‘বোটলক্যাপ চ্যালেঞ্জ’ গ্রহণ করলেন ভারতীয় ক্রিকেটের গব্বর।

উল্লেখ্য, ওভালে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে বিশ্বকাপের দ্বিতীয় ম্যাচে ম্যাচ জেতানো ১১৭ রানের ইনিংস এসেছিল শিখর ধাওয়ানের ব্যাট থেকে। কিন্তু ওই ম্যাচেই বাঁ-হাতের বুড়ো আঙুলে গুরুতর চোট পান ধাওয়ান। যা পরবর্তীতে পুরো টুর্নামেন্ট থেকে ছিটকে দেয় তাঁকে। পরিবর্ত হিসেবে যুক্তরাজ্যে দলের সঙ্গে যোগ দেন তরুণ উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান ঋষভ পন্ত। ধাওয়ানের পরিবর্ত হিসেবে ওপেনে রোহিত শর্মার সঙ্গে বাকি টুর্নামেন্টের জন্য জুটি বাঁধেন দক্ষিণী ব্যাটসম্যান কেএল রাহুল।

আরও পড়ুন: সুপার ওভার দেখতে গিয়ে মারা যান নিশামের কোচ

বিশ্বকাপের বাকি ম্যাচগুলোতে ধাওয়ানের পরিবর্ত হিসেবে রোহিতের সঙ্গে মোটের উপর ভালোই ভরসা জোগান রাহুল। এমনকি শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে গ্রুপের শেষ ম্যাচে বিশ্বকাপের প্রথম শতরানটিও তুলে নেন তিনি। যদিও নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে সেমিফাইনালে রাহুল সহ ব্যর্থ হয় দলের টপ-অর্ডার। বিশ্বকাপ থেকে বিদায় নেয় টিম ইন্ডিয়াও। তবে বিশ্বকাপের কালো অধ্যায় ভুলে গিয়ে সামনে তাকাতে মরিয়া গব্বর। পরবর্তী লক্ষ্য ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফর। সেখানে ৩টি টি২০, ৩টি ওয়ান ডে ও ২টি টেস্টের দলে চোট সারিয়ে ফেরার অপেক্ষায় বাঁ-হাতি ওপেনার।

আরও পড়ুন: ভারতের কোচ হতে পারবেন না সচিন, সৌরভ, সেহওয়াগরা

তার আগে শুক্রবার চোট সারিয়ে ওঠার পর নেট সেশনের প্রথম ভিডিও টুইটারে পোস্ট করলেন গব্বর। যেখানে দিনকয়েক আগে যুবরাজের ছুঁড়ে দেওয়া ‘বোটলক্যাপ চ্যালেঞ্জ’ সাদরে গ্রহণ করলেন এবং লেটার মার্ক নিয়ে পাশ করলেন শিখর। সোশ্যাল মিডিয়ায় আপলোড করা ভিডিওটির ক্যাপশন হিসেবে গব্বর লেখেন, ‘যুবি পাজি, এই দেখো আমার বোটলক্যাপ চ্যালেঞ্জ। চোট সারিয়ে ওঠার পর প্রথমবারের জন্য ব্যাট ধরলাম। নেটে ফিরে দারুণ লাগছে।’ প্রত্যুত্তরে ধাওয়ানকে বাহবাও দিলেন যুবরাজ।

চলতি মাসেই বিশ্বকাপের মাঝে সোশ্যাল মিডিয়ায় বোটলক্যাপ চ্যালেঞ্জের একটি ভিডিও পোস্ট করেছিলেন জাতীয় দলের সদ্য প্রাক্তন তারকা যুবরাজ সিং। যেখানে দেখা যাচ্ছে স্ট্রেট ব্যাটে একটি টেনিস বল দিয়ে সামনে রাখা জলের বোটলকে নিশানা করছেন যুবি। ভিডিওটি পোস্ট করে ব্রায়ান লারা, শিখর ধাওয়ান, ক্রিস গেইল, সচিন তেন্ডুলকরদের মতো তারকা ও কিংবদন্তিদের পরবর্তীতে এই চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করার ডাক দেন যুবি।

চোট সারিয়ে প্রথমদিনের নেট সেশনেই প্রাক্তন সতীর্থের সেই চ্যালেঞ্জ দুর্দান্তভাবে গ্রহণ করলেন গব্বর।