যদিও বেশির ভাগ সিনেমার খাতিরে। কিন্তু শ্যুটিংয়ের মাঝে শহর কলকাতার ফ্লেভার চুটিয়ে উপভোগ করলেন জাহ্নবী ও ইশান। কখন ট্রামে চড়ে ঘুরলেন কলকাতা। কখনও আবার ভিক্টোরিয়ার সামনে জমিয়ে খেলেন ফুচকা-ঝালমুড়ি। যে সব ছবি এখন ঘুরে ফিরছে ওয়াল টু ওয়াল।

মারাঠি ছবি ‘সাইরাত’-এর রিমেকের স্বত্ব কিনেছেন কর্ণ জোহর। মুম্বইয়ের একপ্রস্থ শ্যুটিংয়ের শেষ। গত ২০ মার্চ বৃহস্পতিবার থেকে চলছে কলকাতায় শ্যুটিং পর্ব। সোমবার ছিল এশহরে ‘ধড়ক’ জুটির শেষ দিন। জানা যাচ্ছে, শশাঙ্ক খৈতানের পরিচালনায় কলকাতার মোট দশটি লোকেশন ঘুরে ঘুরে শুটিংয়ের কাজ হয়েছে।

বড়লোক বাবা-মায়ের আদুরে মেয়ে। সে শিক্ষিতা। ভবিষ্যতও উজ্জ্বল। সব কিছু ঠিক চলছিল। কিন্তু একদিন সে প্রেমে পড়ে। যদিও ছেলেটি মেয়েটির কাছে তাঁর স্বপ্নের রাজপুত্তুর। কিন্তু আদতে ছেলেটি ছিল গরীব ঘরের। ফলে কোনও ভাবেই তাদের এই প্রেম মেনে নিতে চায় না মেয়েটির পরিবার। অগত্যা পরিবার, ছেড়ে ছেলেটির হাত ধরে মেয়ের পালিয়ে বেড়ানো।

আর পালিয়ে সোজা কলকাতা। তবে এশহর জাহ্নবীর গ্ল্যামারের ছটা থেকে দূরে থাকল। চুরিদার-ওরনায় সাধামাঠা শ্রীকন্যাকে দেখল তিলত্তমা।